Android One vs Android OS মার্কেটিং স্ট্রেটিজি

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

Google Android One কেন মার্কেটে অফার করলো সেটা আগে বলি?

১. মানুষকে এফোরডেবল ফোন প্রোভাইড করা।
২. প্রথম উদ্দেশ্য টা আসলে লোক দেখানো। মুলত, google এর Android মার্কেটে Fragmentation হয়ে যাচ্ছিলো। গুগলের হাত থেকে সফটওয়্যার নিয়ন্ত্রনের ফোনের সফটওয়্যার নিয়ন্ত্রনের ক্ষমতা চলে যাচ্ছিলো। সেটা ফেরানোর জন্যই এ্যান্ড্রয়েড ওয়ানের উত্থান।

Utility of Android One:

১. দুই বছরের গুগলের কমপ্লিট সফটওয়্যার আপডেট সাপোর্ট।
২. আপডেটেড সিকিউরিটি প্যাচ প্রোভাইড করা হবে।
৩. আপডেট এ্যান্ড্রয়েড ইউসারদের সবার আগে মিলবে

এন্ড্রয়েড ওয়ানের ইতিহাস (ইন্ডিয়া পার্ট)

Android One লাঞ্চ হবার পর ইন্ডিয়াতে চুক্তি হয় কারবোন, মাইক্রোম্যাক্স এবং স্পাইসের সাথে। এই কোম্পানিগুলো যখন বাজারে প্রোডাক্ট আনতে শুরু করে তখন তার তেমন কোন ভাল মার্কেটিং করেনি। আর এর ফলে মানুষের এ্যান্ড্রয়েড সম্পর্কে এবং এর Provided Premium Value সম্পর্কে কোন আইডিয়াই ছিলো না। আর এর পাশাপাশি, তৈরীকৃত ফোনের কোয়ালিটি মোটেও ভালো ছিলো না। এ্যান্ড্রয়েড ওয়ান বাদে আর তেমন কোন আকর্ষণীয় বিষয় এই ফোনগুলোর মধ্যে ছিলো না। যা হবার তাই হলো। কোম্পানিগুলো মার্কেটে ফেইল করলো। পরবর্তীতে, Lava ট্রাই করে। কিন্তু তারাও আশানুরূপ কিছুই করতে পারে না।

কিন্তু ২০১৭ তে অবস্থা পুরোই পরিবর্তন হয়ে যায়। শাওমি গুগলের সাথে পারটনারশীপে লঞ্চ করে Mi A1। এটা একটা ধামাকা ছিলো। দাম মাত্র ১৫০০০ সাথে ভরপুর ফিচার। প্রচুর সেলস হয় এই ফোনটির। এই সাফল্যের পরিপেক্ষিতে মার্কেটে আসে Mi A2 and A3। পরবর্তীতে গুগলের সাথে পজর্টনারশীপে গিয়ে মার্কেটে Motorola এবং Nokia ও Andriod One সম্বলিত ফোন আনতে শুরু করে।

Android One ভারতে কেন ফেইল করে?

এখন আসি মেইন পার্টে। যার জন্য মূলত আমার এই লেখাটা লেখছি। Mi A1 এর সাফল্য Xiomi এর Redmi Note সিরিজের ফোন গুলোকে আউটসোল্ড করতে শুরু করে। আর এতে Xiomi নীতিনির্ধারকদের মাথায় চিন্তার ভাজ পড়ে। তখন তারা, A সিরিজের ফোনের সেলস ক্যাপ নির্ধারন করে দেয় এবং Android One এর আপডেট নিয়ে ধানাই-পানাই শুরু করে। আপডেটে অনেক বাগ থাকতো। ফলে আপডেট রোলব্যাক হতো। আর এর ফলে আপডেট সময় মতো আসতো না। শাওমি ইচ্ছাকৃত ভাবে এই কাজটি করা শুরু করে যাতে A1 এর সেলসে Redmi Note সিরিজকে হার্ট না করে। A2 এবং A3 এর সাথেও একই ঘটনা ঘটে। A2 এবং A3 তে কিছু ফিচার তারা অফার করতো না। যেটা কিনা সেটা তারা তাদের Redmi সিরিজে করতো। এর কারন, যাতে মানুষ ডাইভার্ট হয়। Mi A2 দাম বেশী রাখা হলো আর হেডফোন জ্যাক সরিয়ে দেওয়া হলো। Mi A3 তে দাম কমালেও ৭২০পি ডিসপ্লে দেয়। মার্কেটিং এর ভাষায় যাকে ক্যানিবালাইজেশন বলে। Android One এর বড় সমস্যা হলো সব কন্ট্রোল গুগলের হাতে চলে যায়। যার ফলে Xiomi এর কন্ট্রোল থাকতো না ফোনের সফটওয়্যারের উপরে। কোন এ্যাড শো করা যেতো না। মোট কথা, ব্যবহারকারীর Experience কন্ট্রোল করার মতো কোন ক্ষমতাই শাওমি পাচ্ছিলো না। যার ফলে, Xiomi শুধু মাত্র সার্কেটে ব্রান্ডিংয়ের জন্য গুগলের সাথে পার্টনারশিপে ফোন আনা শুরু করে। যাষ্ট মার্কেটকে দেখানোর জন্য আমরা গুগলের সাথে আছি। তাদের মেইন ফোকাস থাকতো তাদের নিজের ব্রান্ডগুলোর উপর।

মূলত ভারতীয় বাজারে সাফল্য কম এমন কোম্পানিগুলো সাফল্য ফেরাতে গুগলের সাথে চুক্তিতে যেতো। যেমনঃ মোটোরোলা এবং নোকিয়া। যদিও তাদের সেলস যথেষ্ট ভালো ছিলো কিন্তু চিনা কোম্পানীদের সাথে প্রতিযোগীতায় পেরে ওঠা অনেক কষ্ট হয়ে যাচ্ছিলো। তাদের মার্কেট শেয়ার পরিমানও মার্কেটে খুবই কম।

গুগলের Android One যেখানে ফেইল করে সেগুলো হচ্ছে,

১. অন্য প্রতিষ্ঠানের উপর ডিপেডেন্সি।
২. সবকিছু কন্ট্রোলে নেওয়ার মনোভাব (যেটা কিনা অন্য কোম্পানি সহ্য করবে না।)
৩. গ্রাহক দেওয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে না পারা। (আপডেট এবং সিকিউরিটি প্যাচ সম্পর্কিত)
৪. কনসিসটেন্সি রক্ষা করতে না পারা।

Android One এবং Go, ইন্ডিয়াাকে গুগলের পার্সপেক্টিভ থেকে ফেইল। কারন, তারা যে উদ্দম নিয়ে এসেছিলো সেটা ধরে রাখতে পারেনি। হিউজ সেলস হতে পারে, কিন্তু হিউজ সেলসই মার্কেটে সাফল্য নির্ধারনের একমাত্র নিয়ামক হতে পারে না। মার্কেটে তো মাথা উঁচু করে টিকেও থাকতে হবে।

কেন লেখলাম লেখাটা?

আজকে আর্টিকেল পড়তে জানতে পারলাম, গুগল আর জিও মিলে Affordable Smartphone লঞ্চ করবে ভারতে। কারন, রিসার্চ মতে ৭৫% ভারতীয় মানুষ ফিচার ফোন ব্যবহার করতে খুব ভালোবাসে। তাদের সেই পছন্দের পণ্য থেকে তার দুরে সরানোই যাচ্ছে না। সবচেয়ে মজার বিষয়, ফিচার ফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৪০-৪৫% মানুষের ফোনের দাম ১০০০ রুপি বা ১৩ ডলারের কাছাকাছি।

তারপর আরো ঘাটতে দেখলাম, Google Android One এবং Go project ভারতে ব্যর্থ।

তারপর দেখলাম, গুগলে আর জিও এর মতো আগেও কিছু চায়নিজ কোম্পানি Affordable Smartphone বাজারের অফারের চেষ্টা করেছিলো। কিন্তু আশানুরূপ ফল না পেয়ে মুভ করে। দেখা যাক, গুগল আর জিও কি করে।

Azman Azim
9th Batch (Marketing)
Jagannath University.

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

Jatri
Startup Story

বাংলাদেশী প্রথম ডিজিটাল বাস ট্র্যাকিং এবং টিকিটিং প্লাটফর্ম ‘ যাত্রী ‘

প্রায় ৪৭ শতাংশ যাত্রী প্রতিদিন বাসে যাতায়াত করে। অনির্ধারিত বাস, দীর্ঘ সারি ধরে বাসের জন্য দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করা এবং লাইন ধরে বাসের টিকেট কাটা এবং