Local SEO, লোকাল এসইও ব্যবহার করে আপনার লোকাল মার্কেট কে গ্রাব করুন

Local SEO, লোকাল এসইও ব্যবহার করে আপনার লোকাল মার্কেট কে গ্রাব করুন
Share This Post

আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছে যারা এসইও নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক তবে,লোকাল এসইও নিয়ে তেমন কোন ধারণা নেই। যার ফলে প্রতিনিয়তই হতে হচ্ছে বিভিন্ন রকমের বাধার সম্মুখীন। একটি ওয়েবসাইটে টার্গেটেড অডিয়্যান্সকে নিয়ে আসার জন্য লোকাল এসইও যে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। তা অনেকেরই অজানা।

Local SEO এর সঠিক ব্যাবহার আপনার সেল বাড়িয়ে দিতে পারে কয়েকগুন। কি বিশ্বাস হচ্ছে না? তাহলে আজকের এই লেখাটি আপনার জন্যই।

বর্তমানে সার্চ ইঞ্জিন সেবাদানকারী ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য গুগোল সবসময়ই চেষ্টা করে সার্চ ইঞ্জিনে ভিজিটরদের জন্য সবচেয়ে সঠিক ও নিখুঁত রেজাল্ট প্রদান করার। আর এই সার্চইঞ্জিনে রেজাল্ট আসার একমাত্র উপায় হচ্ছে এসইও। 

অর্থাৎ আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে সঠিক ভাবে SEO করেন তাহলেই আপনার ওয়েবসাইটটি সার্চ ইঞ্জিনের রেজাল্ট এ প্রথম সারির দিকে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে । এই জন্য  সাধারণ SEO এর পাশাপাশি লোকাল অডিয়্যান্স গ্রাব করতে Local SEO সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

Local SEO কি? Local SEO কিভাবে ব্যাবহার করতে হয় এবং Local SEO এর মাধ্যমে খুব সহজেই আপনি কিভাবে আপনার লোকাল মার্কেটকে গ্রাব করতে পারবেন এসব নিয়েই আমাদের আজকের আলোচনা। চলুন,তবে শুরু করা যাক।

Local SEO কি?

Local SEO কি?

ব্যাপরটি আরও সহজভাবে বুঝার জন্য আমরা ছোট একটি উদাহরণ দিতে পারি যেমন : ধরুন,ঢাকায় আপনার একটি আইটি সেন্টার আছে, আপনি সেই আইটি সেন্টার এর জন্য একটি এসইও করবেন সেক্ষেত্রে কি সারা পৃথিবীর সকল মানুষেকে টার্গেট করে এসিইও করবেন? নাকি একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক অডিয়্যান্সকে টার্গেট করবেন? 

আপনি অবশ্যই একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক অডিয়্যান্সকে টার্গেট করবেন। কেননা,পৃথিবীর অন্য প্রান্তের মানুষেরা চাইলেই সহজে আপনার আইটি সেন্টারে যোগদান করতে পারবে না। এক্ষেত্রে আপনার অবশ্যই প্রয়োজন লোকাল অডিয়্যান্সের দৃষ্টি আকর্ষণ করা কারণ তারা চাইলেই খুব সহজে আপনার আইটি সেন্টারে যোগদান করতে পারবে।

মূলত এই পদ্ধতিতেই, আপনার নির্দিষ্ট এলাকা জুড়ে অডিয়েন্স গুলো টার্গেট করে আপনি আপনার ব্যবসায়িক বৃদ্ধির জন্য যে এসইও করবেন  সেটাই মূলত Local SEO। Local SEO এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার কাঙ্খিত গ্রাহক বা ভিজিটরকে খুজে পেতে পারবেন।

Local SEO এর ক্ষেত্রে আপনার ঠিকানা শহরের নাম এবং বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে অপটিমাইজেশন করা হয়ে থাকে। যাতে করে সবাই আপনাকে খুব সহজে এবং অনলাইনে এবং অফলাইনে দুইভাবেই খুঁজে পেতে পারে। 

Local SEO কেন প্রয়োজন?

SEO করার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে, আপনি আসলে কোন টপিক নিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করছেন, সে সম্পর্কে সার্চ ইঞ্জিনকে স্পষ্ট ধারনা দেয়া। এজন্যই মূলত SEO করার প্রয়োজন হয়।

আপনি আপনি হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি দিয়ে গুগলে সার্চ দিন “Best coffee shop in dhaka city” সার্চ দেওয়ার সাথে সাথেই গুগল আপনাকে সাজেস্ট করবে। এখন কথা হচ্ছে গুগল তো একটা সার্চ ইঞ্জিন, গুগল কি করে জানলো এই দোকানের কফি বেস্ট উত্তরটা খুবই সহজ। Local SEO এর কল্যাণেই এমনটা সম্ভব হয়েছে।

Local SEO-তে এমন কিছু টিপস এবং ট্রিকস আছে। যেগুলোর মাধ্যমে খুব সহজেই সার্চ ইঞ্জিনকে আপনার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে অবগত করা সম্ভব।

Local SEO কেন প্রয়োজন?

আপনি যত বড় ব্যবসায়ীই হন না কেন আপনার যত বড় ব্যাবস্যা প্রতিষ্ঠানই থাকুক না কেন আপনার ব্যাবসার প্রচার না হলে আপনি কখনো সফল হতে পারবেন না। তাই এই প্রচারণার মাধ্যম হিসেবে, সময়ের সাথে সাথে Local SEO ব্যাপকভাবে বিস্তার লাভ করছে। 

যেমন: daraz.com, chaldal নানারকমের ওয়েবসাইটগুলি লোকাল এসইওর মাধ্যমে প্রতিদিন হাজার হাজার গ্রাহকদের সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। অর্থ্যাৎ, এটি বলা যেতেই পারে যে প্রচার প্রচারণার জন্য লোকাল এসইও এখন অপরিহার্য।

Local SEO কিভাবে কাজ করে?

গুগল শুধুমাএ ৩ টি পদ্ধতি  অনুসরন করে এই কাজটি করে থাকে। যেমন:

  • Index IP & Location Info.
  • Detect IP
  • Detecting Location.

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক এই তিনটি পদ্ধতি কিভাবে কাজ করে।

Index IP & Location Info:

Google এর রয়েছে “ইন্ডেক্সার” নামক একটি প্রোগ্রামিং রোবট যার মূল কাজ হলে, বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে তথ্য সংগ্রহ করে তা Google এর সার্ভারে জমা রাখা।আপনি যখন Local SEO করবেন তখন গুগলকে দেওয়া আপনার তথ্যগুলোকে ইন্ডেক্সার জমা করে রাখবে।

Index IP & Location Info

Detect IP:

যখন আমরা কোনো নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত হই তখন আমাদের প্রত্যেকের একটি করে IP Address থাকে। সেই আইপি এড্রেসের মাধ্যমে আপনি সেই সময়ে কোন জায়গাতে অবস্থান করছেন। সে সম্পর্কে ধারনা পাওয়া সম্ভব। ঠিক তেমনি গুগলে আপনার ব্যাবসায়ের তথ্য দেওয়ার পর কেউ যখন গুগলকে জানিয়ে দেয় তার প্রতিষ্ঠান আসলে কোন আইপি এড্রেসের অংশ। তখন সেই তথ্যগুলো গুগল তার নিজস্ব সার্ভারে জমা রাখে।

Detect IP

তারপর কেউ যদি আপনার সিলেক্ট করা আইপির সাথে যুক্ত অবস্থায় আপনার প্রতিষ্ঠান বা ব্যাবসা সম্পর্কিত কোনো বিষয়ে গুগলে সার্চ করে,তখনই গুগল খুব সহজেই বুঝতে পারে যে, তার আশেপাশে কোথায় কি কি প্রতিষ্ঠান আছে।

Detecting Location: 

গুগলে আপনি আপনার কোম্পানি ব্যাবসায়ের তথ্য দেওয়ার পর গুগল সহজেই আপনার লোকেশন ডিটেক্ট করতে পারে এবং কেউ যখন ঐ লোকেশন এ সার্চ দেয় তখন আপনার কোম্পানি বা ব্যাবসায়ের রেজাল্ট দেখায়।

Detecting Location

উপরের আলোচনা থেকে নিশ্চয়ই এতক্ষণে বুঝে গেছেন লোকাল এসইও কিভাবে কাজ করে। তাহলে আবার ফিরে আসা যাক আমাদের মূল আলোচনায় কিভাবে Local SEO করবেন। 

লোকাল এসইও করার নিয়ম:

পদ্ধতি-১: লোকাল ডোমেইন কিনুন

আমাদের নাম যেমন আমাদের পরিচয় বহন করে ঠিক তেমনি একটি ডোমেন একটি ওয়েবসাইটের পরিচয় বহন করে। আপনি যখন লোকাল এসইও করার জন্য একটি ডোমেইন কিনবেন তখন সেই ডোমেইনের এক্সটেনশন এর দিকে একটু খেয়াল রাখতে হবে।

লোকাল ডোমেইন কিনুন

আপনার টার্গেট যেহেতু লোকাল অডিয়্যান্সকে সার্ভিস দেওয়া তাই ডোমেইন ও অবশ্যই লোকাল অডিয়্যান্স টার্গেটেড রাখতে হবে।

একটি উদাহরন এর মাধ্যমে ব্যাপারটি আরও সহজ করা যাক, ধরুন, আপনি বাংলাদেশের অডিয়্যান্সকে টার্গেট করে ব্যাবসা কার্যক্রম পরিচালনা করবেন সেক্ষেত্রে আপনি আপনার ডোমেইনে (.bd) যুক্ত করতে পারেন এভাবে আপনি আপনার টার্গেটেড অডিয়্যান্সের কাছে রিচ করতে পারবেন। যেমন: https://domain.texort.com/

পদ্ধতি-২: Google My Business Account একাউন্ট খুলুন

পদ্ধতি-২: Google My Business Account একাউন্ট খুলুন

Local SEO এর ক্ষেত্রে অবশ্যই গুগলকে জানতে হবে আপনি কি ধরনের ব্যাবসা করছেন তাহলেই গুগল আপনার ব্যাবসা সম্পর্কে ধারণা পাবে এবং অন্যদের কাছে জিনিসটি তুলে ধরবে। এই পদ্ধতিটির মধ্য দিয়ে যেতে হলে আপনাকে অবশ্যই Google My Business Account খুলতে হবে। এই My Business Account এর মাধ্যমে গুগল আপনার ব্যাবসার জন্য নানা ধরণের সুবিধাও দিয়ে থাকে। Local SEO এর জন্য Google My Business খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  

Google My Business মূলত চারটি বিষয় নিয়ে গঠিত। যেমন:

  • Google Map
  • Google Business Page
  • Google Business Page Review
  • Google Map Based Photo

Local SEO করার জন্য এই চারটি পয়েন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ন। আপনাকে আপনার ব্যাবসার তথ্যগুলো গুগলকে দিতে হবে আর এই তথ্য জমা রাখার সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি হলো Google Map. আপনি যখন গুগল ম্যাপে আপনার ব্যাবসার তথ্যগুলো জমা রাখবেন তখন গুগলে কেউ আপনার ব্যাবসার নাম বা ঠিকানা লিখে সার্চ দিলে সার্চ রেজাল্টের সবার  উপরে আপনার নাম দেখাবে। আর হ্যাঁ যখন আপনার কোনো তথ্য গুগলে জমা দিবেন। তখন অবশ্যই আপনার রিয়েল তথ্য দেয়ার চেষ্টা করবেন।

পদ্ধতি -৩: নিয়মিত রিভিউ সংগ্রহ করুন

পদ্ধতি -৩: নিয়মিত রিভিউ সংগ্রহ করুন

কাস্টমারদের থেকে অবশ্যই নিয়মিত রিভিউ নিবেন।এমন করা যাবে না যে মন চাইলো নিলাম আবার মন চাইলো না নিলাম না।নিয়মিত রিভিউ নিতে হবে। নিয়মিত রিভিউ নেওয়ার ফলে আপনার বিজনেস একাউন্ট গুগল বেশি র্্যংক করাবে। যা আপনার একাউন্টের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

পদ্ধতি -৪: লোকাল কিওয়ার্ড রিসার্চ করুন

পদ্ধতি -৪: লোকাল কিওয়ার্ড রিসার্চ করুন

একটি নির্দিষ্ট এলাকার কোন কিওয়ার্ড নিয়ে আপনি কাজ করবেন তা আপনাকে আগে বের করতে হবে। আপনি যে এলাকা নিয়ে কাজ করবেন ঐ এলাকায় কি  নিয়ে কাজ করলে ভালো হবে তা আপনাকে রিসার্চ করে বের করতে হবে।এরপর ঐটার উপর কাজ করবেন। 

যেমন: আপনার এলাকায় পোষা প্রাণীদের জন্য কোন খাবারের দোকান নেই অথচ অনেক মানুষই বিড়াল, কুকুর এসব পোষেন এবং এসব প্রানীদের খাবার আনতে তাদের অন্য এলাকায় যেতে হয়। সেক্ষেত্রে আপনি এটিকে টার্গেট করে আপনার ব্যাবসা শুরু করতে পারেন। 

আশা করছি উপরের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করলে আপনি খুব সহজেই Local SEO করতে পারবেন। যা আপনাকে আপনার লোকাল মার্কেট গ্রাব করতে সাহায্য করবে।আপনি যদি ঠিক মতো এলাকা ঠিক রেখে Local SEO করতে পারেন তবে, লোকাল মানুষজন গুগলে সার্চ দিলে সবার আগে আপনার প্রতিষ্ঠানটি আসবে এবং ক্রেতারাও র্্যাকিং এবং অন্যান্য বিষয় সমূহ দেখে খুব সহজেই ইন্টারেস্টেড হবে আপনার প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করার জন্য। এভাবেই Local SEO এর সঠিক ব্যাবহার আপনার সেল বাড়িয়ে দিতে পারে কয়েকগুন।

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More To Explore
কনটেন্ট মার্কেটিং প্ল্যান বিল্ড করার ৭টি স্টেপ
Marketing

কনটেন্ট মার্কেটিং প্ল্যান বিল্ড করার ৭টি স্টেপ

ডিজিটাল যুগে কনটেন্ট মার্কেটিং, অডিয়েন্সের সাথে যুক্ত হতে, ব্র্যান্ড রেপুটেশন তৈরি করতে এবং কনভার্সন ড্রাইভ করতে চাওয়া ব্যবসা গুলোর জন্য একটা ফাউন্ডেশন হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

ফেইসবুক অ্যাডভার্টাইজিংয়ের মাধ্যমে গ্লোবালি প্রোডাক্ট সেল করুন
Marketing

ফেইসবুক অ্যাডভার্টাইজিংয়ের মাধ্যমে গ্লোবালি প্রোডাক্ট সেল করুন

আপনার লোকাল বিজনেসটিকে আরো অ্যাডভান্স করতে, গ্লোবালি প্রোডাক্ট সেল করা একটা গেম-চেঞ্জার হতে পারে এবং ফেসবুক অ্যাডভার্টাইজিং কিন্তু এই পরিবর্তনের একটা গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। বিশ্বব্যাপী ২.৮ বিলিয়ন