কিভাবে নতুন কোন স্কিল ডেভেলপ করবেন? – ৭ টি স্টেপ

কিভাবে নতুন কোন স্কিল ডেভেলপ করবেন? - ৭ টি স্টেপ
Share This Post

আমরা যে দ্রুত গতিসম্পন্ন এবং সর্বদা বিকশিত বিশ্বে বাস করি, সেখানে নতুন নতুন স্কিল ডেভেলপ করার ক্ষমতা পার্সোনাল এবং প্রোফেশনাল বৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এখানে আপনি আপনার ক্যারিয়ারের সম্ভাবনা বাড়ানো, আপনার কোনো একটি শখ এক্সপ্লোর করা বা কেবল আপনার হরাইজন্স প্রসারিত করতে চাইছেন না কেন, নতুন স্কিল ডেভেলপ আপনার জন্য কিন্তু একটি ম্যান্ডাটরি বিষয়।

কিভাবে নতুন কোন স্কিল ডেভেলপ করবেন? - ৭ টি স্টেপ

কারণ, দিন যত বাড়ছে কম্পিটিশন তত বাড়ছে। আপনি সরকারি, বেসরকারি, যেকোনো কর্পোরেট জব কিংবা ফ্রিল্যান্সিং বা উদ্দোক্তা হোন না কেন। আপনার মত আরো হাজারো লোক বসে আছে সেইম ফিল্ডে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য। এখন এই লাখো মানুষকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যেতে চাইলে, অবশ্যই তাদের থেকে দক্ষতায়ও এগিয়ে থাকতে হবে। এ কারণেই নতুন নতুন স্কিল ডেভেলপ করতে আগ্রহী হতে হবে। 

আজকের এই আর্টিকেল এ, আমরা আপনাকে একটি ৭ টি স্টেপ  মধ্য দিয়ে নিয়ে যাব। যাতে আপনি ইফেক্টিভ ভাবে নতুন কোনো দক্ষতা অর্জন করতে পারেন।

নতুন স্কিল ডেভেলপ এর ৭ টি স্টেপ :

লার্নিং অ্যান্ড স্কিল ডেভেলপ নিঃসন্দেহে সিস্টেমেটিক প্রোসেস। অর্থাৎ, একটা বিশেষ ক্ষেত্রে দক্ষতা অর্জনের জন্য প্রয়োজন ধাপে ধাপে পরিবর্তন এবং একটিভিটি এপ্লিকেশন। এই পর্যায়ক্রমিক প্রক্রিয়া ফলো না করায় কোনো কিছু শেখার আগেই হাল ছেড়ে দিয়ে চলে যায় অনেকেই। তাই নতুন একটি স্কিল ডেভেলপ এর স্টেপ গুলো ফলো করুন-

স্টেপ-১: আপনার লক্ষ্য নির্ধারণ করুন:

দক্ষতা বিকাশের প্রথম এবং গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হল আপনার লক্ষ্যকে স্পষ্টভাবে আইডেন্টিফাই করা। আপনি কি দক্ষতা অর্জন করতে চান? কেন এটা আপনার পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ? একটি স্পষ্ট লক্ষ্য স্ট্যাবলিশ করা আপনার লার্নিং জার্নির জন্য দিকনির্দেশনা এবং উৎসাহ দিতে সাহায্য করে। 

স্টেপ-১: আপনার লক্ষ্য নির্ধারণ করুন

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি একটি প্রোগ্রামিং ভাষায় দক্ষ হতে চান তবে কোন ভাষাটি শিখতে চান সেটা আগে নির্দিষ্ট করুন। এবং বাস্তবসম্মত মাইলফলক সেট করুন। তবেই আপনি শেখার প্রতি সত্যিকার অর্থে মোটিভেটেড হতে পারবেন। আর আপনার স্কিল ডেভেলপ জার্নিও সহজ হবে। 

স্টেপ-২: গবেষণা এবং রিসোর্স সংগ্রহ:

একবার আপনি আপনার দক্ষতা সনাক্ত করার পরে, সংগ্রহে থাকা রিসোর্স গুলো বোঝার জন্য পুঙ্খানুপুঙ্খ গবেষণা করুন। আপনার নির্বাচিত দক্ষতার সাথে সম্পর্কিত অনলাইন কোর্স, বই, টিউটোরিয়াল এবং কমিউনিটি গুলো খুঁজে বের  করুন।

স্টেপ-২: গবেষণা এবং রিসোর্স সংগ্রহ

যেমন, কোর্সেরা, উডেমি এবং খান একাডেমির মতো প্ল্যাটফর্মগুলি প্রচুর কোর্স অফার করে। এগুলোর অধিকাংশ স্কিল ই ওই সেক্টর এর বিশেষজ্ঞদের দ্বারা শেখানো হয়। অনলাইন ফোরাম এবং সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপগুলি ব্যবহার করুন। এভাবে সমমনা শিক্ষার্থীদের সাথে কমিউনিকেট করুন এবং পরামর্শ আদান প্রদান করে নিজে ও অপরকে সাহায্য করুন। 

স্টেপ-৩: একটি লার্নিং প্ল্যানিং তৈরি করুন:

লার্নিং এ ধারাবাহিক অগ্রগতির জন্য একটি কাঠামোগত শিক্ষার পরিকল্পনা তৈরি করা অপরিহার্য। আপনার দক্ষতাকে ছোট, বড়, মিডিয়াম, ম্যানেজেবল এভাবে আলাদা আলাদা বিষয় গুলোতে বিভক্ত করুন। নির্দিষ্ট মাইলফলক সহ একটি টাইমলাইন তৈরি করুন এবং প্রতিদিন বা সপ্তাহে অনুশীলনের জন্য নির্দিষ্ট সময় বরাদ্দ করুন। একটি সুসংগঠিত পরিকল্পনা থাকা আপনার লার্নিং থেকে মিস লিড হওয়া রোধ করে এবং সময়ের সাথে সাথে আপনার স্ট্যাবল একটা উন্নতি নিশ্চিত করে।

স্টেপ-৩: একটি লার্নিং প্ল্যানিং তৈরি করুন

স্টেপ-৪: নিয়মিত প্র্যাকটিস করুন:

স্কিল ডেভেলপ বা দক্ষতা উন্নয়ন একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া যার জন্য ধারাবাহিক অনুশীলন প্রয়োজন। আপনার নির্বাচিত দক্ষতার উপর ফোকাস করার জন্য আপনার সময়সূচীতে আলাদা করে সময় ডেডিকেট করুন। ইচ্ছাকৃত অনুশীলন টাইম রাখুন, যেখানে আপনি নিজেকে চ্যালেঞ্জ করবেন এবং আপনার কমফোর্ট জোন ছাড়িয়ে যাবেন। এগুলোই কিন্তু যেকোনো লার্নিং জার্নির উন্নতির চাবিকাঠি। 

স্টেপ-৪: নিয়মিত প্র্যাকটিস করুন

কোডিং, ব্যায়াম, ল্যাংগুয়েজ, ড্রিল বা বাদ্যযন্ত্রের স্কিল যাই হোক না কেন, নিয়মিত এবং ফোকাসড অনুশীলন হ’ল দক্ষতা আয়ত্তের ভিত্তি।

স্টেপ-৫: মতামত নিন:

গঠনমূলক কমেন্ট আপনার দক্ষতা রিফাইন করার জন্য খুবই ইফেক্টিভ। তাই আপনার সহকর্মী, পরামর্শদাতা বা অনলাইন কমিউনিটির  সাথে আপনার শেখার প্রোগ্রেস আলোচনা করুন, তদের সাথে আপনার সুবিধা অসুবিধা গুলো ভাগ করুন। গঠনমূলক সমালোচনা কে পজিটিভলি নিতে শিখুন। 

স্টেপ-৫: মতামত নিন

এমন ব্যক্তিদের সাথে যোগাযোগ রাখুন যারা আপনার সিলেক্টেড সেক্টরের ইনসাইট প্রোভাইড করবো। এবং এমন জায়গায় সময় দিন যেখানে আপনি উন্নতি করতে পারেন এবং আপনাকে শেখার প্রক্রিয়ার প্রথম দিকেই ভুল সংশোধন করতে সহায়তা করবে। তাই দ্রুত বৃদ্ধির জন্য একটি হাতিয়ার হিসাবে কমেন্ট কে কাজে লাগান, এবং আপনি যে ইনপুটটি পেয়েছেন তার উপর ভিত্তি করে আপনার লার্নিং জার্নিতে প্রয়োজনে পরিবর্তন আনতে ভয় পাবেন না, হতে পারে এতে আপনার স্কিল ডেভেলপ প্রোসেস আরো এডভান্স হবে। 

স্টেপ-৬: কনসিস্টেন্ট এবং ধর্য্যশীল থাকুন:

দক্ষতা উন্নয়ন একটি ম্যারাথন, স্প্রিন্ট নয়। শিক্ষার পুরো যাত্রা জুড়ে ধারাবাহিক ও ধৈর্যশীল থাকা অপরিহার্য। এখানে চ্যালেঞ্জ এবং হতাশার মুহূর্ত থাকবে, তবে একটি ইতিবাচক মানসিকতা বজায় রাখা এবং একটা কাজে প্রোগ্রেস হতে যে সময় নেয় তা বোঝা আপনাকে মোটিভেটেড থাকতে সাহায্য করবে। 

স্টেপ-৬: কনসিস্টেন্ট এবং ধৈর্যশীল থাকুন

তাই পুরো জার্নিতে ধরে ছোট ছোট ভিকটরি গুলোকে উদযাপন করুন এবং এটা মেনে চলতে চেষ্টা করুন যে বাধা বিপত্তি গুলো আসলে শেখার পথের স্বাভাবিক অংশ।

স্টেপ-৭: রিফ্লেক্ট করুন এবং পুনরাবৃত্তি করুন:

নিয়মিতভাবে আপনার লার্নিং জার্নিকে রিফ্লেক্ট করুন এবং আপনার কতটুকু প্রগ্রেস হল তা মূল্যায়ন করুন। কোন কৌশলগুলি ভালভাবে কাজ করছে এবং কোন ক্ষেত্রে উন্নতি প্রয়োজন তা চিহ্নিত করুন। আপনার রিফলেকশনের উপর ভিত্তি করে আপনার স্কিল শেখার পরিকল্পনা এবং কৌশলগুলি মডিফাই করুন। এছাড়াও স্কিল অর্জনের জন্য কন্টিনিউয়াস একটা কাজের পুনরাবৃত্তি করা আপমার স্কিল কে আরো বেশি সাসটেইনেবল করতে সাহায্য করবে।  

স্টেপ-৭: রিফ্লেক্ট করুন এবং পুনরাবৃত্তি করুন

উপসংহারে,

নতুন কোনো দক্ষতা আয়ত্ত করা একটি ফলপ্রসূ প্রচেষ্টা যার জন্য প্রয়োজন ডেডিকেশন, প্লানিং এবং অধ্যবসায়। এই সাতটি ধাপ – আপনার লক্ষ্য নির্ধারণ করা, রিসোর্স গবেষণা করা, একটি লার্নিং পরিকল্পনা তৈরি করা, নিয়মিত অনুশীলন করা, ফিডব্যাক চাওয়া, রেগুলার ও ধৈর্যশীল থাকা, রিফ্লেক্ট এবং পুনরাবৃত্তি করা ইত্যাদি অনুসরণ করে আপনি আপনার সেট করা যেকোনো স্কিল ডেভেলপ করতে পারবেন। আশা করি আপনার নতুন নতুন দক্ষতা অর্জনের এই প্রচেষ্টা ফলপ্রসূ হোক। 

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More To Explore
POD বিজনেসে আপনার নিশের জন্যে ডিমান্ডিং প্রোডাক্ট  তৈরী করুন
Marketing

POD বিজনেসে আপনার নিশের জন্যে ডিমান্ডিং প্রোডাক্ট  তৈরী করুন

প্রিন্ট-অন-ডিমান্ড বা POD বিজনেস রিসেন্ট বছরগুলিতে কিন্তু একটা রিমার্কেবল গ্রোথ এর সাক্ষী হয়েছে। কারণ, পিওডি বিজনেস উদ্যোক্তাদেরকে তাদের ক্রিয়েটিভ স্কিল গুলো মার্কেটে নিয়ে আসার জন্য

ছাত্রজীবনে যে স্কিলগুলো থাকলে প্রফেশনাল লাইফ ইফেক্টিভ হবে
Marketing

ছাত্রজীবনে যে স্কিলগুলো থাকলে প্রফেশনাল লাইফ ইফেক্টিভ হবে

আজকের এই প্রতিযোগিতামূলক প্রোফেশনাল ওয়ার্ল্ডে, সাফল্য শুধুমাত্র একাডেমিক কৃতিত্বের উপর নির্ভর করে না। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ কর্তারা এখন কন্টিনিউয়াসলি স্কিলড এবং সেন্টার্ড ব্যক্তিদের ভ্যালুকে বেশি প্রাধান্য