লিড জেনারেশন কী, লিড জেনারেশন কিভাবে করবেন?- ১২টি পদ্ধতি

লিড জেনারেশন কী, লিড জেনারেশন কিভাবে করবেন?- ১২টি পদ্ধতি
Share This Post

লিড জেনারেশন, মার্কেটিং এবং সেলসের এবং একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফাউন্ডেশন। বিজনেস গ্রোথের ভিত্তি তৈরি করা, সম্ভাব্য গ্রাহকদের চিহ্নিত করা এবং আকৃষ্ট করা, তাদের কে আরো বেশি ইনভলভ করাই এর উদ্দেশ্য। ডিজিটাল মার্কেটিং এর ক্রমবর্ধমান ল্যান্ডস্কেপে লিড জেনারেশন চাহিদা বছরের পর বছর ধরে বেড়েই চলেছে। আজকের প্রতিযোগিতামূলক বাজারে, ব্যবসায় এগিয়ে থাকার জন্য এটি একটি বিশেষ প্রয়োজনীয়তা।

লিড জেনারেশন কোম্পানি গুলোকে এমন সব গ্রাহকের সন্ধান দিচ্ছে যারা ওই প্রোডাক্টের প্রতি কিংবা সমধর্মী প্রোডাক্টের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এবং এইসব সম্ভাব্য কাস্টমারদের সাথে কোম্পানির  কানেকশন তৈরি করে দিচ্ছে। ফলস্বরূপ সেলসের সম্ভাবনাও অনেক বেশি বেড়ে যাচ্ছে। বিজনেস গুলো একটি বৃহৎ পরিসরের কাস্টমারদের সাথে কানেক্টেড থাকতে পারছে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং মেশিন লার্নিং লিড জেনারেশান কে আরো এডভান্স করে দিয়েছে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সির মাধ্যমে কোম্পানি গুলো অডিয়েন্সর পছন্দ অপছন্দ ডিটেক্ট করে লিড জেনারেশান কে একটি অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে।   

Key Points

  • অডিয়েন্স টার্গেটিং ও সম্ভাব্য গ্রাহক খুঁজে পেতে বিজনেস গুলো আশ্রয় নিচ্ছে লিড জেনারেশান এর 
  • ভিজিটর, অডিয়েন্স, সাবসক্রাইবার কিংবা মেম্বারদের বেসিক ডাটা ট্র্যাক করে লিড ডিটেক্ট করা হচ্ছে 
  • Lead Magnet এর সহয়তায় অডিয়েন্স কে আকৃষ্ট করা হচ্ছে এবং সম্ভাব্য গ্রাহক কে কাস্টমারের পরিনত করা হচ্ছে 
  • বড় বড় প্রতিষ্ঠান, বিজনেস কোম্পানি গুলো লিড জেনারেশান ও মার্কেট এক্সপার্ট হায়ার করছে
  • ২০২৫ সাল নাগাদ অটোপ, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও ডিজিটাল টেকনলোজির সাহায্যে লিড জেনারেশান এর অতুলনীয় সাফল্য আসবে বলে ধারনা করা হচ্ছে

লিড কি? (What is a Lead?)

লিড হল এমন কোনো ব্যক্তি যিনি নির্দিষ্ট কোনো কোম্পানি বা ব্রান্ডের কোনো প্রোডাক্টে বা সার্ভিসের প্রতি ইন্টারেস্ট দেখিয়েছেন। অর্থাৎ কোনো উপায়ে তিনি নিজের পছন্দের তালিকায় একটি পণ্যের কথা উল্লেখ করেছেন। তখন সেই ব্রান্ড বা কোম্পানির কাছে তিনিই একজন লিড বা সম্ভাব্য কাস্টমার ও বলা যায়৷ 

কোনো প্রয়োজন কিংবা কাজের সুবাদে যখন কেউ তাদের ইমেল, নাম্বার, সোশ্যাল মিডিয়ায় ইনফরমেশন কোনো কোম্পানি বা ব্রান্ড কে জানায় তাহলে তারা সেগুলোকে ফলো করে কাস্টমার টার্গেট করে থাকেন। এবং ইন্টারেস্টেড অডিয়েন্স থেকে একদম পেয়িং কাস্টমারে ট্রান্সফর্ম করার চেষ্টা করেন। 

উদাহরণস্বরূপ, আপনি কেনো অনলাইন সার্ভে তে অংশগ্রহন করলেন। ঐ সময়ে আপনি আপনার মোবাইল নম্বর, ইমেইল, সোশাল মিডিয়ার লিংক, আপনার পছন্দের কোনো প্রোডাক্টের তথ্য প্রদান করলেন। যেহেতু আপনি একটি নির্দিষ্ট পণ্যের প্রতি আপনার আকর্ষণ, ভাললাগা প্রকাশ করেছেন, ওই কোম্পানি তখন আপনার ইমেইল বা ফোন ফলো করবে। আপনাকে একজন অডিয়েন্স থেকে কাস্টমারে রুপান্তরিত করার জন্য চেষ্টা চালাবে। এই সময়ে আপনিই হচ্ছেন ওই কোম্পানির জন্য একটি লিড। 

লিড জেনারেশান বলতে কি বুঝায়? (What Do You Mean by Lead Generation) 

“লিড জেনারেশান হল একটি মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি, যেখানে আপনার বিজনেসের পণ্য বা সেবার প্রতি আগ্রহী সম্ভাব্য গ্রাহক কে আকৃষ্ট করা হয়”, Brian Fredric।  

ইতোমধ্যে আমরা জেনেছি লিড কারা। আর আপনি যখন রিলেটেড ইনফরমেশন ফলো করে এইসব লিডের সাথে কানেক্ট করার ট্রাই করবেন এবং তাদের আকৃষ্ট করার ট্রাই করবেন, এই সম্পূর্ণ প্রোসেস টাই হল লিড জেনারেশান। 

কোম্পানি গুলো মূলত বিভিন্ন সার্ভে, সার্চ হিস্টোরি, পাবলিক ইনফরমেশন, সোশ্যাল মিডিয়া একটিভিটি থেকে আপনার পছন্দ অপছন্দ কে ট্র্যাক করার চেষ্টা করে। এরপর আপনার পছন্দ বা ইন্টারেস্ট অনুযায়ী তারা আপনার সাথে রিলেট করার ট্রাই করে। আপনাকে ইমেল, টেক্সট, বিজ্ঞাপন, অফার, ডিসকাউন্ট ইত্যাদির মাধ্যমে আকৃষ্ট করার চেষ্টা করা হয়। এবং পরিশেষে তাদের উদ্দেশ্য আপনাকে একজন কাস্টমারে পরিনত করা।  

 লিড জেনারেশান কেন গুরুত্বপূর্ণ? (Why Lead Generation?) 

সেপ্টেম্বর ২০২১, এর একটি জরিপে দেখা গেছে, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ও এডভান্স অটোমোটন এর সাহায্যে ২০২৫ সাল নাগাদ, লিড জেনারেশান এ যাবতকালের সর্বাধিক গ্রাহক ক্যাপচার করতে পারবে। কোম্পানি গুলো এখন থেকেই হাই পেমেন্ট লিড জেনারেশান এক্সপার্ট, ডিজিটাল মার্কেটার হায়ার করছে। এর কারণ লিড জেনারেশানের আশ্চর্যজনক সাফল্য। একজন মার্কেটার কিংবা বিজনেস ওনার কেন লিড জেনারেশান চুজ করবেন-

ব্যবসার বৃদ্ধি: 

ব্যবসার বৃদ্ধি: 

লিড জেনারেশন বিজনেস গুলোকে সম্ভাব্য গ্রাহকদের খুঁজে পেতে সাহায্য করে। ফলে তাদের সেলস বৃদ্ধি এবং লাভের সম্ভাবনা বাড়ে।

কাস্টমার একুইজেশন: 

কাস্টমার একুইজেশন

লিড জেনারেশান সম্ভাব্য ক্রেতাদের আকৃষ্ট করার এবং রিলেট করার ট্রাই করে। ফলে কাস্টমার রা আরো বেশি Convinced হয়ে পরেন। ফলে পেয়িং কাস্টমারের সংখ্যা প্রচুর বেড়ে যায়।  

টার্গেটেড মার্কেটিং: 

টার্গেটেড মার্কেটিং

লিডসের মাধ্যমে এমন ব্যক্তিদের খুঁজে পাওয়া সম্ভব যাদেরকে কাস্টমারে ট্রান্সফার করা সহজ। এছাড়া ভবিষৎে কি ধরনের প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করতে হবে, কাদের টার্গেট করতে হবে তা ডিটেক্ট করা যায়। 

ROI ট্র্যাকিং: 

ROI ট্র্যাকিং

মার্কেটিং এবং বিজ্ঞাপনের কস্ট খুব সহজেই ওভারকাম করা যায়। বিজনেস গুলোর ক্ষেত্রে রিটার্ন ট্র্যাকিং এবং প্রফিট বাড়ানো সহজ করে দেয়। 

লিড জেনারেশান স্টেপ বাই স্টেপ গাইডলাইন (Lead Generation Step By Step Guideline) 

১. টার্গেটেড অডিয়েন্স আইডেন্টিফাই করুন (Define Your Target Audience): 

১. টার্গেটেড অডিয়েন্স আইডেন্টিফাই করুন (Define Your Target Audience): 

আপনার আইডিয়াল কাস্টমার কারা? কাদের কাছে আপনার প্রোডাক্টের ভ্যালু বেশি। অথবা কাদের এই মুহুর্তে এই পণ্য বা সেবার প্রয়োজন বেশি? এই জিনিস টি সর্বপ্রথম খুঁজে বের করতে হবে। এজন্য অডিয়েন্সের বেসিক ডেমোগ্রাফিকস, ইন্টারেস্ট, বিহেভিয়ার ট্র্যাক করতে হবে। এরপরই আইডিয়াল অডিয়েন্স ডিটেক্ট করা যাবে। 

২. কম্পেইলিং কনটেন্ট তৈরি করুন (Create Compelling Content): 

২. কম্পেইলিং কনটেন্ট তৈরি করুন (Create Compelling Content): 

এরপরই যে কাজটি সবচেয়ে বেশি জরুরি তা হল কন্টেন্ট ক্রিয়েশন। এজন্য হাই কোয়ালিটি কনটেন্ট তৈরি করুন যেগুলোর সাথে আপনার টার্গেট করা অডিয়েন্স রা রিলেট করতে পারবে। মোট কথা, অডিয়েন্স কে কনভিন্স করাতে হবে যে আপনি তাদের প্রয়োজন বুঝেন। এবং আপনার পণ্য বা সেবা তাদের চাহিদা পুরন করতে সক্ষম। 

৩. লিড ম্যাগনেট ব্যবহার করুন (Choose Lead Magnets): 

৩. লিড ম্যাগনেট ব্যবহার করুন (Choose Lead Magnets): 

বিভিন্ন ধরনের ইনসেন্টিভ যেমন, ই-বুক, webinars, ফ্রী ট্রায়াল, অফার বা প্যাকেজ, ডিসকাউন্ট ইত্যাদির মাধ্যমে অডিয়েন্স কে আকৃষ্ট করার ট্রাই করুন। ফলে, অডিয়েন্স রা পণ্য বা সেবা নেয়ার আগেই নিজেদের কে benefited মনে করবে। পাশাপাশি আপনার বিজনেস সার্ভিসের ওপর আস্থা তৈরি হবে। 

৪. ওয়েবসাইট অপটিমাইজ করুন (Optimize Website): 

৪. ওয়েবসাইট অপটিমাইজ করুন (Optimize Website): 

এটা নিশ্চিত করুন যে আপনার ওয়েবসাইট একদম ইউজার ফ্রেন্ডলি, দ্রুত লোড হয় এবং মোবাইল ইউজ এর জন্যও একদম পার্ফেক্ট।  কারণ আপনার বিজনেসের সেবা নিতে যখন কেউ আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করবে তখন অতিরিক্ত পেজ লোডিং, বাফারিং ইত্যাদি কারনে আগ্রহ হারিয়ে ফেলতে পারে। তাই ওয়েবসাইটের ইমপ্রেশনস ঠিক রাখুন। 

৫. ইমপ্লিমেন্ট ফর্ম (Implement Forms): 

৫. ইমপ্লিমেন্ট ফর্ম (Implement Forms): 

আপনার ওয়েবসাইটে এমন কিছু রিলেটেড ফর্ম, সার্ভে কিংবা রিসার্চের আয়োজন করুন। এতে করে ভিজিটরদের কিছু বেসিক ইনফরমেশন যেমন নাম, ইমেইল, ফোন, সোশ্যাল মিডিয়া, preferences ইত্যাদি কালেক্ট করা যায়। এই ইনফরমেশন গুলো ব্যবহার করেই পরবর্তীতে লিড জেনারেশান অপারেশন করা হবে।   

৬. সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করুন (Utilize Social Media):

৬. সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করুন (Utilize Social Media):

আপনার কনটেন্ট, কন্টেন্ট রিলেটেড ভিডিও, শর্টস, ছবি কিংবা পোস্ট গুলো আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় আপডেট করুন। যেহেতু সোশ্যাল মিডিয়া গুলো এখন কাস্টমার টার্গেটিং এর সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম তাই একে ইউটিলাইজ করুন। 

৭. ই-মেইল মার্কেটিং (Email Marketing): 

৭. ই-মেইল মার্কেটিং (Email Marketing): 

লিড জেনারেশান এর অন্যতম ফাস্ট এবং পুরাতন স্ট্র্যাটেজি কিন্তু ই-মেইল মার্কেটিং। কারণ ওয়েবসাইট ভিজিটর, সার্ভে কিংবা রিসার্চ ডাটা কালেকশনের সময়ে ই-মেইল ব্যবহার করা হয় এবং খুব সহজেই ট্র্যাক করা যায়। আর ই-মেইল মার্কেটিং প্রফেশনাল পর্যায়ে লিড জেনারেশান এর জন্য একদম পার্ফেক্ট একটি স্ট্র্যাটেজি।  

৮. পেইড বিজ্ঞাপন (Paid Advertising): 

৮. পেইড বিজ্ঞাপন (Paid Advertising): 

গুগল এডস, সোশ্যাল মিডিয়া, ইউটিউব কিংবা ওয়েবসাইট গুলোতে পেইড বিজ্ঞাপনের ব্যবস্থা করুন। এতে করে খুব অল্প সময়ে ওয়াইড রেঞ্জের অডিয়েন্স রিচ করা সম্ভব। 

৯. এসইও স্ট্র্যাটেজি (SEO Strategies): 

৯. এসইও স্ট্র্যাটেজি (SEO Strategies): 

লিড জেনারেশানে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ রোল হলে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন। ওয়েবসাইটের ট্রাফিক ও ভিজিবিলিট বাড়াতে ওয়েবসাইটের সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কোনো বিকল্প নেই।   

১০. নেটওয়ার্কিং এবং পার্টনারশিপ (Networking and Partnerships): 

১০. নেটওয়ার্কিং এবং পার্টনারশিপ (Networking and Partnerships): 

বিজনেসের গ্রোথ এবং রিচ বাড়াতে প্রয়োজন নেটওয়ার্কিং। তাই ইন্ডাস্ট্রি ইনফ্লুয়েন্সার দের সাথে collaborate করুন। পার্টনারশিপ ও ডিলিং এর মাধ্যমে ব্রান্ড কে আরো বেশি পরিচিত ও পাওয়ারফুল করে তুলুন।  

১১. সিআরএম সিস্টেম (CRM System) : 

১১. সিআরএম সিস্টেম (CRM System) : 

Customer Relationship Management (CRM) টুলস ব্যাবহার করুন। এবং এগুলোর সাহায্য আপনার বিজনেসের লিড জেনারেশান কে আরো বেশি অর্গানাইজড এবং ইফেক্টিভ করে তুলুন। এছাড়াও মার্কেটিং অটোমেশন টুলস এর মাধ্যমে লিড স্ট্রিমলাইন করুন।  

১২. A/B টেস্টিং (A/B Testing): 

১২. A/B টেস্টিং (A/B Testing): 

ফাইনালি, বিভিন্নি মার্কেটিং স্ট্র্যাটিজি, কনটেন্ট এবং এপ্রোচ Continuously এপ্লাই করতে থাকুন এবং আপনার লিড জেনারেশান স্ট্যাটাস test করুন। এতে করে আরো বেশি ইফেক্টিভ জেনারেশন পসিবল। 

উপসংহার 

মার্কেটিং কে আরো বেশি এডভান্স ও ইফেক্টিভ করার উদ্দেশ্যেই লিড জেনারেশান এর মত স্ট্র্যাটেজি ব্যবহার করা হচ্ছে। এবং সৌভাগ্যক্রমে মার্কেটিং এর বিস্তারে লিড জেনারেশান অতুলনীয় 

সাফল্য নিয়ে আসছে। এবং খুব শীগ্রই আধুনিক প্রযুক্তি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, অটোমেশন , ডাটা এনালাইসিস টুলসের সাথে লিড জেনারেশানের জার্নি অনেক দূর এগিয়ে যাবে। তবে, লিড জেনারেশান একটি অনগোয়িং প্রোসেস। তাই, কন্সট্যান্ট refinement এবং Adaptation এর মাধ্যমে লিড জেনারেশানে সাফল্য লাভ করা সম্ভব।  

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More To Explore
আপনার ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট কিভাবে বিল্ড এবং গ্রো করবেন
Marketing

আপনার ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট কিভাবে বিল্ড এবং গ্রো করবেন

ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট বিল্ড এবং গ্রো করা একটা সাকসেসফুল ই-মেইল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি এর প্রথম স্টেপ।ই-মেইল মার্কেটিং বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটা মোস্ট কমন এবং ইফেক্টিভ

আপকামিং ফাদার্স-ডে সেল টার্গেট অ্যাচিভ করার-৭টি টিপস
Marketing

আপকামিং ফাদার্স-ডে সেল টার্গেট অ্যাচিভ করার-৭টি টিপস

বাবা-নিজের শখ, চাহিদা এবং সুখ বিসর্জন দিয়ে আমাদের জীবনের প্রতিটা মুহুর্ত সুন্দর করার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করা কারিগর। বাবারা হয়ত বাইরের থেকে কঠিন। কিন্তু এই