সফল নারী উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কোন দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা প্রয়োজন?

সফল নারী উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কোন দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা প্রয়োজন
Share This Post

আমরা আজকে নারী উদ্যোক্তা সম্পর্কিত দারুন একটি বিষয় আলোচনা করতে যাচ্ছি।

বর্তমানে বিশ্বব্যাপি পুরুষের পাশাপাশি নারীরা বিজনেসসহ অন্যান্য বড় বড় সেক্টরে বেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কোন দক্ষতা অভিজ্ঞতাগুলো নারী উদ্যোক্তাদের সফলতার দ্বারপ্রান্তে পৌছে দিচ্ছে? 

সাধারন কিছু দক্ষতা ছাড়াও, এমন কিছু নির্দিষ্ট দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা রয়েছে যা প্রত্যেক সফল নারী উদ্যোক্তাদের থাকা প্রয়োজন। 

আজকের আমরা উদ্যোক্তা নারীদের সেইসব দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা নিয়ে কথা বলবো যেগুলো তাদের সফলতায় ব্যাপক ভূমিকা রাখে। 

সফল নারী উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য সেরা ৫টি দক্ষতা

১। লিডারশীপ

আপনি যদি একজন সেরা মহিলা উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান তাহলে নেতৃত্ব তথা লিডারশীপ নামক দক্ষতা আপনাকে ভালোভাবে রপ্ত করতে হবে। 

আর এই নেতৃত্ব হচ্ছে সবকিছুর দায়িত্ব নেওয়া, অন্যদের অনুপ্রাণিত করা এবং একটি গ্রুপের পিছনে চালিকা শক্তি হওয়া। 

নেতৃত্ব অর্জনের জন্য আপনার নিজেকে এমন একজন হিসেবে গড়ে তুলতে হবে যিনি সবাইকে একত্রিত করতে পারেন, সবার দৃষ্টিভঙ্গি সেট করতে পারেন এবং সকল কাজ সম্পাদন করতে পারেন। 

আবার নেতৃত্ব দেওয়া মানে যে সবসময় আপনার আশেপাশের লোকদের উপর বস গিরি দেখাবেন বিষয়টি কিন্তু তেমন নয়। 

বরং মাঝে মাঝে সবাইকে কথা বলার সুযোগ করে দিতে হবে, সবার কথা শুনতে হবে এবং সবার প্রাপ্য অধিকার পূরণ করতেও হবে।‌ যেগুলো একজন প্রকৃত লিডারের কর্তব্য।

সুতরাং আপনি যদি বিজনেস ওয়ার্ল্ড জয় করতে চান তাহলে আপনার নেতৃত্বের দক্ষতাকে আরও উন্নত করতে হবে। 

আর এভাবেই আপনি আপনার নিজের বিজনেসের জন্য একজন উপযুক্ত লিডার হয়ে উঠবেন।

২। যোগাযোগ তথা কমিউনিকেশন 

নারী উদ্যোক্তা হওয়ার ক্ষেত্রে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো কমিউনিকেশন। 

আসলেই এটি একটি গেম-চেঞ্জার।

কেউ যদি আপনাকে তার প্রয়োজনে ইমেইল করে অথবা আপনি যদি কাউকে আপনার ব্যবসায়িক প্রয়োজনে ইমেইল করেন তাহলে এতটুকু নিশ্চিত করতে হবে যে আপনার বা তাদের বার্তা গুলো কার্যকরভাবে সময়মতো গন্তব্যে পৌঁছায়।

এক কথায় অন্যদের সাথে সুন্দর একটা কমিউনিকেশন গড়ে তুলতে হবে।

কমিউনিকেশন ঠিক রাখার মাধ্যমে আপনি যে শুধু নিজের মতামতই প্রকাশ করবেন তা কিন্তু একদমই নয় বরং অন্যের মতামতও আপনাকে মনোযোগ দিয়ে প্রাধান্যের সাথে শুনতে হবে। 

আপনার টিম, ক্লায়েন্ট এবং স্টেকহোল্ডারদের ঠিকঠাক ভাবে বুঝাই হচ্ছে একটি সুন্দর কানেকশন গড়ে তোলার চাবিকাঠি। 

অতএব আপনার ক্যারিশম্যাটিক গল্প বলার দক্ষতা থেকে শুরু করে সবার কথা অনবদ্য শোনা পর্যন্ত সকল কমিউনিকেশন স্কিল আরও উন্নত করার মাধ্যমে আপনি আপনার উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্নকে আরও একধাপ এগিয়ে রাখতে পারবেন।

৩। ফাইনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট

ফাইনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট

একজন নারী উদ্যোক্তা হওয়ার সময় ফাইনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট করা সহজ কোনো কাজ নয়।

আর এই ফাইনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট হচ্ছে এক ধরনের সুপার পাওয়ার থাকার মতো যার দ্বারা আপনি অর্থ এবং সংখ্যার জটিল বিশ্বে সহজে নেভিগেট করতে পারবেন। 

আপনাকে বাজেট, ক্যাশ ফ্লো এবং এই সংক্রান্ত অভিনব তথা ফেন্সি জিনিস সম্পর্কে আপনার পথ জানতে হবে। 

এই স্প্রেডশীটগুলি বুঝতে সক্ষম হওয়া এবং বসের মতো সবকিছুর ভারসাম্য বজায় রাখার মাধ্যমে আপনি অন্যদের থেকে এগিয়ে থাকবেন।

ফাইনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট কেবলমাত্র আপনার অর্থ কোথায় যাচ্ছে কি না যাচ্ছে তা জানার জন্য নয়, বরং আপনার ব্যবসা বাড়ানো এবং ব্যবসায় লাভ সর্বাধিক করার জন্য একটি স্মার্ট সিদ্ধান্ত।

৪। প্রভলেম-সলভিং

প্রভলেম-সলভিং বিষয়টি হচ্ছে অনেকটা রোমাঞ্চকর রহস্যে গোয়েন্দা হওয়ার মতো। 

কোড ক্র্যাক করা, মিসিং পাজল খোঁজা এবং বসের মতো সমস্ত চ্যালেঞ্জ জয় করা সহ এরকম আরও অন্যান্য বিষয়গুলোর মোকাবেলা করাকেই প্রবলেম-সলভিং বলে। 

একজন দক্ষ মহিলা উদ্যোক্তা হিসেবে শীর্ষস্থানীয় সমস্যা সমাধানের দক্ষতা থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। 

আপনাকে আপনার নিজের ব্যবসা সংক্রান্ত যেকোনো সিদ্ধান্ত নিজে গ্রহণ করতে হবে, কঠিন পরিস্থিতিতেও নিজেকে কন্ট্রোল করে সব কিছুর মোকাবেলা করতে হবে এবং এমন সকল বুদ্ধিমান সমাধান নিয়ে আসতে হবে যা অন্যদের বিস্মিত করবে। 

চিন্তাভাবনা করার ক্ষেত্রেই হোক আর সমস্যা সমাধানের প্রতিবন্ধকতা বা সৃজনশীল সমাধান খুঁজে বের করাই হোক। অর্থাৎ যে ক্ষেত্রেই হোক না কেন আপনার প্রবলেম সলভিং -এর দক্ষতা উদ্যোক্তা হওয়ার যাত্রায় আপনার গোপন অস্ত্র হয়ে উঠবে।

৫। নেটওয়ার্কিং 

বিজনেস ওয়ার্ল্ডে সুবিন্যস্ত একটি নেটওয়ার্কিং থাকার অর্থই হচ্ছে একটি সুপার পাওয়ার হাতে থাকা। 

নেটওয়ার্কিং এর মাধ্যমে মানুষের সাথে সংযোগ তৈরি হয়, নতুন বন্ধু তৈরি করা যায় এবং এমন সকল ব্যবসায়িক সম্পর্ক তৈরি করা যায় যা আপনি কখনও ভাবেননি। 

এর মাধ্যমে আপনি আপনার মতো একই মেন্টালিটির লোকদের নিয়ে একটি গ্রুপ তৈরি করতে পারেন যাদের সাথে বিভিন্ন মূল্যবান মতামত শেয়ার করে এবং তাদের সমর্থনে আপনার ব্যবসাকে এগিয়ে নিতে পারবেন। 

নেটওয়ার্কিং শুধু ব্যবসা কার্ড সংগ্রহ বা অভিনব ইভেন্টে যোগদান করার জন্যই কাজে লাগে না বরং এটি প্রকৃত সংযোগ ও সহযোগিতা বজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

এছাড়াও নেটওয়ার্কিংয়ের দ্বারা আপনি অনেক কিছু করতে পারেন।  

সফল নারী উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য সেরা ৫ অভিজ্ঞতা 

১। ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্টিস

ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্টিস বা শিল্পের দক্ষতা থাকা অনেকটা সৌভাগ্যের মতো। 

ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্টিসের অর্থ হলো আপনি যে ইন্ডাস্ট্রিতে যুক্ত হতে যাচ্ছেন সেটি সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান অর্জন করা। 

যদিও আপনি বছরের পর বছর ধরে একটি ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেছেন বা আপনার নিজস্ব উদ্যোগের মাধ্যমে বিস্তৃত জ্ঞান অর্জন করছেন, তবুও একটি ইন্ডাস্ট্রির ভিতর এবং বাইরের সকল বিষয়ে বিস্তারিত জ্ঞান থাকা আবশ্যক এতে করে আপনি আপনার ব্যবসাকে আরও এগিয়ে নিতে পারবেন। 

আপনাকে বিভিন্ন ট্রেন্ড, চ্যালেঞ্জ এবং বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে জানতে হবে যার ফলে আপনি আপনার ব্যবসায়িক সেক্টরে অনেক স্মার্ট সিদ্ধান্ত নিয়ে অন্যদের চেয়ে এগিয়ে থাকবেন। 

২। প্রফেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড

একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে একটি সলিড প্রফেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড থাকা আবশ্যক। 

প্রফেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড থাকা মানেই একটা কার্যকরী হাতিয়ার হাতে থাকা। এটি বাস্তব বিশ্বের অভিজ্ঞতা থেকেই বলছি। 

ম্যানেজমেন্ট বা মার্কেটিং বা ফিনান্স বা অপারেশন যে সেক্টরেই আপনি কাজ করে থাকেন না কেন, আপনার আগের প্রফেশনাল গিগগুলি আপনাকে মূল্যবান দক্ষতা এবং অন্তর্দৃষ্টি দিয়ে সজ্জিত করে। 

সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্যে প্রফেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড জ্ঞানের ভান্ডার হিসেবে কাজ করে। 

 ৩। টিম ম্যানেজমেন্ট

আপনি যদি একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হিসেবে বিজনেস ওয়ার্ল্ডে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে তাহলে চান টিম ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে আপনাকে অবশ্যই পারদর্শী হতে হবে।

আসলেই এটি আপনার কাছে একটি গোপন অস্ত্র থাকার মতো। 

যখন আপনি একটি টিমকে সমাবেশ করার জন্য, সবার মধ্য থেকে সেরাদের তুলে আনার জন্য এবং তাদের সকলকে মোটিভেট তথা অনুপ্রাণিত করার জন্য টিম ম্যানেজমেন্টের দক্ষতা অর্জন করেন, তখন আপনাকে আর থামতে হবে না। 

টিম ম্যানেজমেন্ট বলতে আমরা বলতে পারি পারফেক্ট সমন্বয় তৈরি করা, একে অপরকে সহযোগিতার জন্য উৎসাহিত করা, এবং দলের প্রতিটি সদস্য যেন বুঝতে পারে তারা প্রত্যেকেই তাদের দলের জন্য সমান ভাবে গুরুত্বপূর্ণ। 

ট্রাস্ট মি, আপনি যদি একবার টিম ম্যানেজমেন্টে পারদর্শী হয়ে উঠেন তাহলে এই অপ্রতিরোধ্য শক্তির দ্বারা আপনি আপনার ব্যবসাকে দুর্দান্ত উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারবেন।  

৪। কাস্টমার সার্ভিস

একজন বেস্ট মহিলা উদ্যোক্তা হিসাবে বিশ্বকে দোলা দেওয়ার জন্য আপনার প্রয়োজন শীর্ষ অভিজ্ঞতাগুলির মধ্যে একটি। 

আর এই শীর্ষ অভিজ্ঞতাগুলির মধ্যে একটি অভিজ্ঞতা হচ্ছে অনেক স্মার্ট ও সুন্দর কাস্টমার সার্ভিস প্রোভাইড করা। 

মনে রাখবেন আপনার কাস্টমার সার্ভিস সুন্দর ও সুবিধা মূলক হলে কাস্টমাররাই আপনার বিজনেস এবং ব্র্যান্ডকে অনেক দ্রুততার সাথে বাকি সবার কাছে পৌঁছে দিবে। 

ভাবুন! আপনার জাস্ট উন্নত মানের কাস্টমার সার্ভিস এর জন্য সবার কাছে আপনার বিজনেস জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। 

তাহলে আপনার উচিত উন্নত মানের কাস্টমার সার্ভিস প্রোভাইড করা। 

আপনি যখন আপনার কাস্টমারদের চাহিদা বুঝতে পারেন এবং সেই অনুযায়ী তাদের বেস্ট সার্ভিস প্রোভাইড করেন, তখন তারা আপনার বিজনেস ও ব্র্যান্ড সম্পর্কে সর্বদা গুণ-গান গাইবে।

৫। প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট 

_প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট

এখন আমি এমন একটা বিষয়ের কথা বলবো যা আসলেই একজন মহিলা উদ্যোক্তার জন্য গেম চেঞ্জার হিসেবে কাজ করে। আর এই বিষয়টি হচ্ছে প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট।

আপনি যখন আপনার মাথার কোনো প্ল্যানকে বা স্বপ্নকে বাস্তবে পরিণত করতে চান তখন প্রয়োজন পরে প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্টের। 

প্রজেক্ট সুন্দরভাবে ম্যানেজমেন্ট করার মাধ্যমেই আপনি আপনার কাঙ্খিত স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে পারবেন। অন্যথায় স্বপ্নের বিজনেসকে বাস্তবে রূপ দিতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হবে। 

পরিকল্পনা করে সংগঠিত করা থেকে শুরু করে সবাইকে ট্র্যাকে রাখা, চমকপ্রদ ফলাফল প্রদান করা‌ এবং প্রকল্প ব্যবস্থাপনা পর্যন্ত এই সকল কিছু হল আপনার সাফল্যের টিকিট। আর এই সকল কিছু সম্ভব শুধুমাত্র প্রোপার ম্যানেজমেন্ট এর মাধ্যমে। 

উপসংহার 

একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য প্রয়োজন কিছু ইউনিক স্কিল, অভিজ্ঞতা এবং গুনাবলী। 

সফলতার জন্য যেহেতু কোনো একক ফর্মুলা নেই, সেক্ষেত্রে চেষ্টা, পরিশ্রম ইত্যাদির পাশাপাশি এইসব স্কিল, অভিজ্ঞতা আবশ্যক। 

উপরে উল্লিখিত দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা সমূহ যদি কোনো নারী উদ্যোক্তা অর্জন করার চেষ্টা করে থাকে, তবে বিজনেস লাইফে সে খুব সহজেই সফলতা অর্জন করতে পারবে। 

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More To Explore
POD বিজনেসে আপনার নিশের জন্যে ডিমান্ডিং প্রোডাক্ট  তৈরী করুন
Marketing

POD বিজনেসে আপনার নিশের জন্যে ডিমান্ডিং প্রোডাক্ট  তৈরী করুন

প্রিন্ট-অন-ডিমান্ড বা POD বিজনেস রিসেন্ট বছরগুলিতে কিন্তু একটা রিমার্কেবল গ্রোথ এর সাক্ষী হয়েছে। কারণ, পিওডি বিজনেস উদ্যোক্তাদেরকে তাদের ক্রিয়েটিভ স্কিল গুলো মার্কেটে নিয়ে আসার জন্য

ছাত্রজীবনে যে স্কিলগুলো থাকলে প্রফেশনাল লাইফ ইফেক্টিভ হবে
Marketing

ছাত্রজীবনে যে স্কিলগুলো থাকলে প্রফেশনাল লাইফ ইফেক্টিভ হবে

আজকের এই প্রতিযোগিতামূলক প্রোফেশনাল ওয়ার্ল্ডে, সাফল্য শুধুমাত্র একাডেমিক কৃতিত্বের উপর নির্ভর করে না। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ কর্তারা এখন কন্টিনিউয়াসলি স্কিলড এবং সেন্টার্ড ব্যক্তিদের ভ্যালুকে বেশি প্রাধান্য