৭ টি বিজনেস স্ট্র্যাটেজি দ্বারা বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসুন

বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট
Share This Post

আপনি কি একটি বিজনেস রান করছেন?

কিভাবে বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসা যায় তা নিয়ে ভাবছেন?

সময়ের পরিক্রমায় বর্তমান সময়ে বিজনেস হয়ে উঠেছে সকল বয়সের মানুষের আগ্রহের প্রধান কেন্দ্রবিন্দু। স্বাধীনভাবে নিজের পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজের মাধ্যমে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানো যায় বিধায় বর্তমানে বেশ চাহিদা বহুল একটি পেশা হল বিজনেস। তাই বিজনেস সেক্টরে সাফল্য অর্জন করতে অবশ্যই সঠিক বিজনেস স্ট্র্যাটেজি জরুরি।

পজিটিভ রেজাল্টের ক্ষেত্রে বিজনেস স্ট্র্যাটেজি কেন জরুরি?

একটি বিজনেস শুরু করা সহজ হলেও প্রয়োজনীয় দক্ষতা এবং উপযুক্ত কর্ম পরিকল্পনার অভাবে এটি পরিচালনা করা হতে পারে বেশ কঠিন। তাই বিজনেস পরিচালনা করার জন্য এবং বিজনেসকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিজনেস স্ট্র্যাটেজি খুব বেশি প্রয়োজন। বিজনেস স্ট্র্যাটেজির মাধ্যমে আপনি আপনার পরিকল্পনাগুলো সাজিয়ে তুলে সে পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করার যোগ্যতা অর্জন করতে পারবেন।

বিজনেস স্ট্র্যাটেজি

পাশাপাশি একটি বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপগুলো আপনি সাজিয়ে তুলতে পারবেন। তাই ক্ষুদ্র স্টার্ট আপ হোক কিংবা কোন বড় মাল্টি-ন্যাশনাল কোম্পানি বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসার ক্ষেত্রে একটি সঠিক এবং উপযুক্ত বিজনেস স্ট্র্যাটেজি মেনে চলা বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসার  উপযুক্ত  স্ট্র্যাটেজি 

একটি চূড়ান্ত মাধ্যমে পৌঁছাতে হলে সবচেয়ে প্রয়োজন হল প্ল্যানিং। একটি বিজনেস রান করতে হলে একটি উপযুক্ত বিজনেস স্ট্র্যাটেজি এই ক্ষেত্রে সাহায্য করবে আপনাকে। তাই আপনার বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসার ক্ষেত্রে মেনে চলুন আলোচিত বিজনেস স্ট্র্যাটেজিসমূহ –

নজর দিন মার্কেট অ্যানালাইসিস এর উপর

কোন বিজনেস পরিচালনা করার ক্ষেত্রে মার্কেট অ্যানালাইসিস প্রথম ধাপ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই ধাপে মার্কেট  অ্যানালাইসিসের  মাধ্যমে আপনি ডিমান্ডিং প্রোডাক্ট সম্পর্কে যেমন আইডিয়া পাবেন ঠিক তেমনি করে আপনি আপনার প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। তাই কিছু বিবেচ্য প্রশ্নের উত্তর জানার মাধ্যমে আপনি এই সেক্টরে ভালোভাবে পদার্পণ করতে পারবেন।

  • আপনার বিজনেস এর প্রধান লক্ষ্য কি
  • কি ধরণের সার্ভিস আপনি প্রদান করবেন?
  • সমস্যা সমাধানের জন্য কি ধরণের মাধ্যম বর্তমানে ব্যবহার করা হচ্ছে?
মার্কেট অ্যানালাইসিস - বিজনেস স্ট্র্যাটেজি
  • কিভাবে আপনার প্রোডাক্ট এর মাধ্যমে তাদের অবস্থার পরিবর্তন ঘটবে ?

পরিপূর্ণরূপে মার্কেট অ্যানালাইসিস এর মাধ্যমে পপুলার প্রোডাক্ট সিলেক্ট করে আপনি আপনার বিজনেস সাজিয়ে তুলতে পারবেন।

আপনার টার্গেট কাস্টমার সম্পর্কে জানুন 

আপনি আপনার বিজনেসে সাকসেসফুল হতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই আপনার টার্গেট কাস্টমার সম্পর্কে জানতে হবে। আপনার বিজনেস অনলাইন কেন্দ্রিক হোক কিংবা অফলাইন কেন্দ্রিক, আপনার টার্গেট কাস্টমার-দের কাছে রিচ করতে হলে আপনার তাদের চাহিদা অনুযায়ী প্রোডাক্ট সাজিয়ে তোলা উচিত।

টার্গেট কাস্টমার

তবে একটি বিজনেস ডেভেলপমেন্ট করতে হলে তা কিন্তু কখনোই একদিনে করা সম্ভব নয়। তাই কাস্টমারদের সাথে একটি সম্পর্ক বিল্ড আপ করতে হলে দিন রাত নিরলস-ভাবে কাজ করে যেতে হবে। তাই এই জন্য আপনার গ্রাহকদের আগ্রহ এবং পছন্দের ক্ষেত্রসমূহ সম্পর্কে জানা হলে আপনি খুব সহজে এই সেক্টরে নিজের বিজনেস এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন।

নজর দিন প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানের দিকে 

বিজনেস এর ক্ষেত্রে প্রতিযোগী মনোভাব সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যখন দুটি কোম্পানি পাশাপাশি একই ধরণের প্রোডাক্ট সেল করবে এবং একই ধরণের কাস্টমার টার্গেট করবে তখন তাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা হওয়া বেশ স্বাভাবিক একটা ব্যাপার।

প্রতিযোগীতা রিসার্চ - বিজনেস স্ট্র্যাটেজি

কোন নতুন বিজনেস বাজারে প্রবেশ করলে বাজার বৃদ্ধি পায়। উদাহরণস্বরূপ কোকাকোলার কথা বলা যায়। কোকা কোলা একটি বেভারেজ কোম্পানি হিসেবে আমেরিকার বাজারের প্রায় ৪২.৮% শেয়ার দখল করে রেখেছে। কিন্তু যখন বাকি প্রতিষ্ঠান পেপসি কিংবা স্প্রাইট এর আবির্ভাব হয়েছে তখন এই পরিধি কমেনি বরং বেড়েছে।

তাই আপনি যদি আপনার প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানদের পরিকল্পনা থেকে ভিন্নতর কোন ধরণের পরিকল্পনা আপনার বিজনেস এ নিজে আসেন তাহলে খুব অল্প সময়ে আপনার বিজনেস গ্রো করার সম্ভাবনা রয়েছে।

গোল সেট করুন 

একটি বিজনেসকে সাকসেসফুলই গ্রো করার জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি নির্দিষ্ট গোল সেট করে রাখতে হবে। আপনি যখন আপনার টার্গেট কাস্টমার সেট করে রাখবেন তখন আপনার প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহ ঠিক একই কাজ করবে। তাই আপনি আপনার লক্ষ্য অর্জন এর জন্য কিছু পরিকল্পনা করে রাখুন। সেই সাথে প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠান থেকে কিছু ভিন্নধর্মী পরিকল্পনা চিন্তা করুন।

উন্নতির ক্ষেত্রগুলো নিয়ে কাজ করুন 

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় বিজনেস এর শুরুতে যে পরিকল্পনাগুলো ছিল ধীরে ধীরে সে পরিকল্পনাগুলো আর বিজনেস ডেভেলপমেন্টে আর তেমন কাজ করছে না। তাই গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী, আপনার বিজনেস এর প্রয়োজন অনুযায়ী উপযুক্ত পরিকল্পনাসমূহ বাস্তবায়ন এর পর যদি তা বিজনেস এর জন্য কার্যকর না হয় তখন আপনার উন্নতির ক্ষেত্রগুলো নিয়ে কাজ করুন।

সাক্সেসফুল বিজনেস স্ট্র্যাটেজি

অনেক সময় প্রতিষ্ঠানসমূহ প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট, কাস্টমার বিহেভিয়ার এই সকল বিষয় নিয়ে বেশ বিপত্তি বাধাই। আবার পেমেন্ট নিয়ে ঝক্কিঝামেলা অনেক প্রতিষ্ঠান ফেইস করে। তাই আপনি যদি শুরুতে আপনার বিজনেসকে ওভারভিউ করেন তাহলে আপনি খুব সহজে আপনার বিজনেস এর ক্ষেত্রগুলো পর্যালোচনা করেন তাহলে আপনি আপনি আপনার উন্নতির ক্ষেত্রগুলো বুঝতে পারবেন এবং সে অনুযায়ী কাজ করতে পারবেন।

নেটওয়ার্কিং বৃদ্ধি করুন 

একটি বিজনেসকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ ভূমিকা পালন করে নেটওয়ার্কিং। তাই আপনি যে ধরণের বিজনেস পরিচালনা করতে চান না কেন সবার আগে নেটওয়ার্কিংয়ে গুরুত্ব দিতে হবে। নেটওয়ার্কিং আপনার বিজনেস এর ব্র্যান্ডিং এর পাশাপাশি বিজনেস প্রোমোটিং, সেলস গ্রোথ এবং পাশাপাশি বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

কাস্টমার সার্ভিস এর দিকে মনোনিবেশ করুন

একটি বিজনেস এর ক্ষেত্রে কাস্টমার হল ঢালস্বরূপ। আর বিজনেসকে প্রাণবন্ত করে পরিচালনা করার ক্ষেত্রে তাই সর্বদা কাস্টমার সার্ভিস এর দিকে নজর দিতে হবে। আপনি যদি আপনার গ্রাহকদের জন্য ভালো কাস্টমার সার্ভিস প্রদান করেন তাহলে বার বার গ্রাহকরা আপনার প্রোডাক্ট কেনার জন্য আগ্রহী হবে। আর তাই বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসার ক্ষেত্রে কিংবা বিজনেসকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে ভালোমানের কাস্টমার সার্ভিস এর দিকে নজর দিন।

শেষ কথা

যেকোনো বিজনেসকে সফলতার স্বর্ণ-শিখরে পৌঁছে দিতে হলে বিজনেস স্ট্র্যাটেজির সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। আশা করছি আজকের আলোচিত বিজনেস স্ট্র্যাটেজিগুলো আপনার বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসার ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ ভূমিকা পালন করবে।

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More To Explore
আপনার ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট কিভাবে বিল্ড এবং গ্রো করবেন
Marketing

আপনার ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট কিভাবে বিল্ড এবং গ্রো করবেন

ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট বিল্ড এবং গ্রো করা একটা সাকসেসফুল ই-মেইল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি এর প্রথম স্টেপ।ই-মেইল মার্কেটিং বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটা মোস্ট কমন এবং ইফেক্টিভ

আপকামিং ফাদার্স-ডে সেল টার্গেট অ্যাচিভ করার-৭টি টিপস
Marketing

আপকামিং ফাদার্স-ডে সেল টার্গেট অ্যাচিভ করার-৭টি টিপস

বাবা-নিজের শখ, চাহিদা এবং সুখ বিসর্জন দিয়ে আমাদের জীবনের প্রতিটা মুহুর্ত সুন্দর করার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করা কারিগর। বাবারা হয়ত বাইরের থেকে কঠিন। কিন্তু এই