fbpx

৯ টি সিক্রেট যা ফলো করলে খুব দ্রুত আপনার বিজনেস গ্রো করবে

বিজনেস গ্রো সিক্রেট

Share This Post

বিজনেস এর সাফল্যের কোন শর্টকার্ট নেই তবে কিছু বিষয় ফলো করলে বিজনেসে দ্রুত সাফল্য অর্জন করা যায়। সেই ক্ষেত্রে একজন উদ্যোক্তা কতটা ব্যবসায়িক মনোভাবের সেটার উপরও অনেক কিছু নির্ভর করে। নিম্নে আমরা ৯ টি সিক্রেট টপিক নিয়ে কথা বলব যা আপনার বিজনেস গ্রো করতে খুবই সহায়ক হবে। নিম্নে তা বর্ণনা করা হলঃ

রিসার্চ

কোন পরিকল্পনা গ্রহন করার আগে সম্ভাব্য গ্রাহক কে হবে, কারা হবে, তাদের ক্ষয়ক্ষমতা সহ তাদের ব্যাপারে অগ্রিম ধারনা নেওয়া হল রিসার্চ। রিসার্চ যত ইফেক্টিভ হবে পরিকল্পনা তত বাস্তব সম্মত হবে। আর পরিকল্পনা যত বাস্তব সম্মত হবে বিজনেস তত দ্রুত গ্রো করবে। রিসার্চের মাধ্যমে ব্যবসায়ের ঝুঁকি কমিয়ে আনা যায়। আপনি যে বিজনেস শুরু করতে যাচ্ছেন তা সম্পর্কে যদি আপনার পরিপূর্ন ধারনা না থাকে তবে আপনার বিজনেস গ্রো করবে না এ ব্যপারে কোন সন্দেহ নেই। আর পরিপূর্ন ধারনার জন্যে তাহলে কি দরকার? অবশ্যই রিসার্চ সুতরাং যখন বিজনেস করার কথা চিন্তা করবেন অবশ্যই রিসার্চ করার মানসিকতা রাখতে হবে।

নতুনত্ব বা ইউনিকনেস

ব্যবসায়ে নতুনত্ব বা ইউনিকনেস বেশ কার্যকর। পন্য বা পরিসেবায় নতুনত্ব নিয়ে আসলে দ্রুত বিজনেস গ্রো করে। এখন সবাই আপডেটেড, সবাই নতুন নতুন পরিসেবা চায়। আর প্রতিষ্ঠানে নতুনত্ব না আনলে সময়ের সাথে টিকে থাকা যায় না।

uddokta hoi

একটু খেয়াল করলে দেখবেন বড় বড় প্রতিষ্ঠান সবসময় ননুনত্ব নিয়ে আসে। আর নতুনত্ব আনবার চিন্তা করার সময় সবার আগে চিন্তা করতে হবে গ্রাহকের চাহিদা নিয়ে। সুতরাং গ্রাহকের চাহিদা নিয়ে গবেষনা করুন এবং তা পুরন করুন বিজনেসের নতুনত্ব আনার মাধ্যমে তবেই আপনার বিজনেস গ্রো করবে।

উন্নত মানের সেবা প্রদান করুন

আপনার হয়তো ফ্যান্টাস্টিক প্রোডাক্ট রয়েছে কিন্তু কাস্টমার যখন সার্ভিস চাচ্ছে আপনি এভেইলেবল না বা আপনি হেল্পফুল না। তাহলে আপনি কাস্টমার হারাবেন। এই কারণেই বিজনেস গুলো কাস্টমার সার্ভিসে ইনভেস্ট করেন। 

বিজনেসে যত উন্নত সেবা প্রদান করা হবে তত খ্যাতি বৃদ্ধি পাবে। আর খ্যাতি বা সুনাম হচ্ছে বিজনেসের অস্পর্শনীয় সম্পদ যা বিজনেস গ্রো দ্রুত সময়ের মধ্যে করে।

বিজনেস গ্রো করুন

পাবলিলিয়াস সাইরাস বলেন অর্থের চেয়ে সুখ্যাতি মূল্যবান। প্রয়োজন হলে কেবল কাস্টমার সার্ভিস দেয়ার জন্য আলাদা কর্মী নিয়োগ করুন। বিজনেস গ্রো এর ক্ষেত্রে কাস্টমারদের সাথে আন্তরিক সম্পর্ক তৈরী করা খুবই জরুরী। এর জন্যেই দরকার ফাস্ট কমিউনিকেশন। আপনি কাস্টমারের রেস্পনসের জন্য অপেক্ষা করবেন এটা ঠিক আছে। কিন্তু কাস্টমার আপনার রেস্পন্সের জন্য অপেক্ষা করবে এটা মোটেও গুড প্র্যাকটিস নয়।

কম্পিটিটর রিসার্চ

আপনি যেই বিজনেসই করেন না সেখানেই আপনার কম্পিটিটর বিদ্যমান। তারা কি ধরনের পরিষেবা প্রদান করছে, তারা কেন এগিয়ে, তাদের মার্কেটিং কি, সেগুলো নিয়ে রিসার্চ করতে হবে। তাতে আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন কিভাবে শুরু করলে আপনি দ্রুত আউটপুট নিয়ে আসতে পারবেন। কম্পিটিটরদের কখনোই হাল্কা ভাবে নিবেন না। কম্পিটিটরকে সব সময় চোখে চোখে না রাখলে সে কখন আপনার কাস্টমার ছিনিয়ে নিয়ে যাবে আপনি টেরও পাবেন না। সুতরাং বিজনেস গ্রো করার ক্ষেত্রে সবসময় কম্পিটিটরকে চোখে চোখে রাখা জরুরী। 

মার্কেটিং প্ল্যান

স্মার্ট মার্কেটিং প্ল্যান বিজনেস গ্রো করে। পন্য উৎপাদন থেকে শুরু করে পন্য বিপনন পর্যন্ত মার্কেটিং প্ল্যান এর কাজ। পন্য কোথায়, কিভাবে কার জন্য উৎপাদন করা হবে, এসবই মার্কেটিং প্ল্যানের অর্ন্তভূক্ত। মার্কেটিং প্ল্যানে সম্ভাব্য সমস্যা, এবং তা উত্তরনে কিভাবে কাজ করা হবে তা নিয়ে কাজ করা হয়। তবে অবশ্যই গুড মার্কেটিং এর সাহায্য নিন। ব্যাড মার্কেটিং প্র্যাক্টিস শুধু আপনাকে কিছুদিনের এটেনশন দিবে কিন্তু আপনি মার্কেটে স্থায়ী হতে পারবেন না। বিজনেস গ্রো এর ক্ষেত্রে গুড মার্কেটিং করে নিজের কোম্পানীর মান ঠিক রাখুন। স্মার্ট মার্কেটিং গোল সেট করুন নিজের বিজনেস এর জন্য।

নতুন নতুন সুযোগ চিহ্নিতকরন

বিজনেসে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সম্ভাবনা তৈরি হয়। একজন উদ্যোক্তাকে সেই সময়ে সেই সুযোগটি যথার্থ কাজে লাগাতে হয়। এজন্য তাকে সব সময় নতুন নতুন সম্ভাবনার জায়গা সিলেক্ট করতে হবে।

বিজনেস গ্রো করতে নতুন নতুন সুযোগ চিহ্নিতকরন

এবং কিভাবে সেখান থেকে আউটপুট নিয়ে আসার জন্য আন্তরিক ভাবে কাজ করে যেতে হবে। ডিজিটাল মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে আপনি চিন্তা করবেন কোন কোন নতুন প্লাটফর্ম ভবিষ্যতে বড় পজিশনে পৌঁছে যাবে সেই প্লাটফর্ম কিভাবে আপনি কাজে লাগাতে পারেন। এসব নিয়ে আগে থেকেই ভেবে রাখুন।

একাধিক আয়ের উৎস নির্ধারন

একাধিক আয়ের উৎস নির্ধারনের ফলে বিজনেসে ঝুঁকি কমে আসে এবং বিজনেস গ্রো করে। একাধিক জায়গায় বিনিয়োগ করলে একটায় কোন কারনে ক্ষতি হলে অন্যটি দিয়ে পুষিয়ে নেওয়া যায়। কিংবা একাধিক জায়গায় ও বিনিয়োগ না করে ও একটা বিজনেস থেকে একধিক উপায়ে ও আয়ের উৎস খুজে বের করতে হবে। যেমন হতে পারে একটা ব্যবসা এত দিন অফলাইনে শুধু পরিচালনা করেছে এখন এই ব্যবসা অফলাইন এবং অনলাইন দুই জায়গায়ই তাদের ব্যবসা পরিচালনা করেছে।তবে এক্ষেত্রে ব্যালেন্সিং করতে না জানলে বিজনেস গ্রো করবে না বরং বিজনেসের ক্ষতি হবে। 

দক্ষ লোক নিয়োগ

দক্ষ লোক যদি প্রতিষ্ঠানে কাজ করে সেখানে মানসম্মত পন্য বা সেবা উৎপাদন হয়। ফলে ক্রেতারা পন্য কিনে কিংবা সার্ভিস নিয়ে খুশি হয় এর ফলে বিজনেসের পরিধি আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে। তাছাড়াও দক্ষ লোক নিয়োগ দিলে অল্প সময়ে তারা অনেক কাজ করে। তাদের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে প্রতিষ্ঠান বা বিজনেস গ্রো করে।

বিজনেস গ্রো করতে সামনের চিন্তা করুন

দুনিয়া প্রতিনিয়তই আপডেট হচ্ছে। তাই সামনের কথা চিন্তা করে সিদ্ধান্ত নিন। সামনে কি কি পরিবর্তন আসতে পারে, কোন কোন প্রোডাক্টের চাহিদা বাড়বে আর কোন কোন প্রোডাক্টের চাহিদা কমবে সে দিকে খেয়াল রেখে বিজনেস পরিচালনা করতে হবে।

এই ৯ টি সিক্রেট টিপস যা আপনার বিজনেস গ্রো করতে ব্যাপক সাহায্য করবে।

৯ টি সিক্রেট যা খুব দ্রুত আপনার বিজনেস গ্রো করবে

পুরো লেখাটি কেমন লাগলো, তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন। আপনাদের প্রতিটি মতামতই আমাদের কাছে সত্যিই অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

যদি মনে হয় লেখাটি নতুন উদ্যোক্তাদের সাহায্য করবে পরবর্তী দিক নির্দেশনা পেতে, তবে শেয়ার করে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন।

এই ধরনের আরও অনেক ইনফো কনটেন্ট এর জন্য আমাদের সাথেই থাকুন।

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Comment

Your email address will not be published.

More To Explore

ব্রাউজার কিভাবে আয় করে ওয়েব ব্রাউজার এর বিভিন্ন কার্যক্রম যা আমাদের অজানা
Entrepreneur

ব্রাউজার কিভাবে আয় করে? ওয়েব ব্রাউজার এর বিভিন্ন কার্যক্রম যা আমাদের অজানা

ব্রাউজার কিভাবে আয় করে? ইন্টারনেট এর দুনিয়ায় পা রাখতে আমরা সবার আগে আমরা ব্যবহার করেছি ব্রাউজার। ব্রাউজার ব্যবহার করেই আমরা নানান অ্যাপ্স বা সফটওয়্যার এর

বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট
Entrepreneur

বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসুন ৭ টি বিজনেস স্ট্র্যাটেজিতে

আপনি কি একটি বিজনেস রান করছেন? কিভাবে বিজনেসে পজিটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসা যায় তা নিয়ে ভাবছেন? সময়ের পরিক্রমায় বর্তমান সময়ে বিজনেস হয়ে উঠেছে সকল বয়সের