বিজনেসের সেলস বৃদ্ধির জন্য ১০টি ইফেক্টিভ লিড জেনারেশন টিপস

সেলস বৃদ্ধির জন্য ১০টি ইফেক্টিভ লিড জেনারেশন টিপস
Share This Post

লিড জেনারেশন (Lead Generation) কি?

লিড জেনারেশন হল এমন একটি প্রসেস যার মাধ্যমে একটি অরগানাইজেশন তাদের নির্দিষ্ট প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস সম্পর্কে টার্গেটেড কাস্টমারের ইন্টারেস্ট বৃদ্ধি করে এবং সেলস অপরচুনিটি তৈরি করে। ম্যাক্সিমাম কোম্পানিগুলিতে মার্কেটিং ডিপার্টমেন্ট মূলত লিড জেনারেশনের কাজটি করে থাকে। যেকোনো বিজনেসের সেলস বৃদ্ধি করার জন্য লিড জেনারেশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ, এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই সঠিক স্টেপগুলি ফলো করতে হবে এবং সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে। এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে বেশ কয়েকটি ইফেক্টিভ লিড জেনারেশন টিপস শেয়ার করব যেগুলো ফলো করলে লিড জেনারেট করা ইজি হবে এবং খুব কম সময়েই বিজনেসের সেলস বৃদ্ধি পাবে।

** দশটি লিড জেনারেশন টিপস **

ওল্ড কাস্টমার ভ্যালু

ওল্ড কাস্টমারদের ভ্যালু দেওয়া - লিড জেনারেশন টিপস

আপনার ওল্ড এবং রিসেন্ট কাস্টমার-ই হতে পারে আপনার সেলস এর বেস্ট সোর্স। কারণ তারা অলরেডি আপনার প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস ব্যবহার করেছে এবং সার্ভিস সম্পর্কে খুব ভালো করে জানে। এজন্য নতুন করে সেলস অপরচুনিটি তৈরি করতে এবং সেলস বৃদ্ধি করতে ওল্ড কাস্টমারকে হাই প্রায়োরিটি দিন। অনেক কোম্পানি সেল ক্লোজ হয়ে যাওয়ার পর আর কাস্টমারদের সাথে তেমন যোগাযোগ রাখেনা, যা একদম-ই উচিত নয়। তাদের সাথে নিয়মিত ফলোআপ করুন, খোঁজ করুন, আপনার সার্ভিস নিয়ে তারা কতটা সেটিস্ফাই সে ব্যাপারে রিসার্চ করুন।

কোল্ড কল (Cold Call)

নতুন নতুন লিড জেনারেট করার জন্য কোল্ড কল খুবই ইফেক্টিভ। কোল্ড কল-কে মূলত লিড জেনারেশনের ফার্স্ট স্টেপ বলা হয়। আপনার টার্গেটেড অডিয়েন্সের সাথে ফোন কলে কমিউনিকেট করুন। কোল্ড কলের জন্য নিম্নোক্ত স্টেপ গুলো খুবই কার্যকরীঃ

কোল্ড কল (লিড জেনারেশন টিপস)
  • ওয়ার্ম গ্রেটিংস দিন;
  • আইডেন্টিফাই ইউরসেল্ফ এন্ড ইউর কোম্পানি;
  • আন্তরিকতার সঙ্গে সময় চেয়ে নিন;
  • কল দেওয়ার কারণ বর্ননা করুন;
  • প্রশ্ন করে জেনে নিন তাদের চাহিদা,এবং সে অনুযায়ী আপনার প্রোডাক্ট, সার্ভিস সাজেস্ট করুন;
  • এবং ফাইনালি একটা এপয়েন্টমেন্ট চেয়ে নিন যেখানে তাকে আরো ডিটেইলসে ইম্প্রেস করতে পারবেন।

ভার্চুয়াল ওয়ার্কশপ/ওয়েবিনার হোস্ট করুন

ভার্চুয়াল ওয়ার্কশপ এবং ওয়েবনারের মাধ্যমে আপনি সরাসরি অডিয়েন্সের সাথে যুক্ত হতে পারছেন। তাদের শেখাতে পারছেন, এওয়ারনেস দিচ্ছেন এবং সেই সাথে আপনার নিজস্ব ব্র‍্যান্ডের প্রোডাক্টগুলোকে তাদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পারছেন। ফলস্বরূপ অনেক বেশি অডিয়েন্স আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে জানতে পারছে যেটা সেলস বৃদ্ধি করতে খুবই হেল্পফুল।

লিড জেনারেশনে ভার্চুয়াল ওয়ার্কশপ/ওয়েবিনার হোস্টিং

এজন্য প্রত্যেক মাসে ৩/৪ টি ওয়ার্কশপের আয়োজন করুন, টার্গেটেড কাস্টমারদের ইনভাইট করুন জয়েন করার জন্য। তাদের অ্যাপ্রোচ করুন এই বলে যে, “যেহেতু আমাদের ওয়ার্কশপটি সম্পূর্ণ ফ্রি, কেন আপনি লার্ন করার সুযোগটি হাতছাড়া করবেন?”।

থ্যাংক-ইউ মেইল/কল (Thank You Mail/Call)

একটা ওয়ার্কশপ শেষ হওয়ার পর পরই যে কাজটি করা উচিত তা হল থ্যাঙ্কিউ মেইল দেওয়া এবং কল করা। যারা যারা ওয়ার্কশপে জয়েন করেছিলো তাদের কে কল করুন, ই-মেইল সেন্ড করুন। ধন্যবাদ দিন ওয়ার্কশপে জয়েন করার জন্য, তাদের ফিডব্যাক নিন, জিজ্ঞেস করুন ওয়ার্কশপটি তাদের জন্য হেল্পফুল ছিল কিনা।

থ্যাংক-ইউ মেইল/কল (লিড জেনারেশন টিপস)

তখন আরো একবার আপনার প্রোডাক্ট, সার্ভিস নিয়ে তাকে বলুন, পরবর্তী ওয়ার্কশপে জয়েন করার জন্য ইনভাইটেশন দিন। এটা সেলস বৃদ্ধি করতে অত্যন্ত কার্যকরী একটা স্টেপ।

ইনফরমেটিভ আর্টিকেল এবং ব্লগ

ইনফরমেটিভ আর্টিকেল এবং ব্লগ (লিড জেনারেশন টিপস)

যেকোনো বিজনেসের সেলস বৃদ্ধি করতে ইনফরমেটিভ ব্লগ রাইটিং অথবা আর্টিকেল পাব্লিশ করা আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ। ফেসবুক বিজনেস পেইজ এবং ওয়েবসাইটে প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস সম্পর্কে ইউনিক এবং প্রোডাক্ট সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ ইনফরমেশন দিয়ে ব্লগ, আর্টিকেল লিখুন। প্রোডাক্ট ব্যবহারের উপকারিতা, ব্যবহার না করলে কি কি ক্ষতি হতে পারে, ব্যবহারের ইন্সট্রাকশন ইত্যাদি উল্লেখ করে ইউনিক আর্টিকেল পাবলিশ করুন।

ই-মেইল সিকুয়েন্স ক্রিয়েট করুন

ই-মেইল সিকুয়েন্স ক্রিয়েট করুন (লিড জেনারেশন টিপস)

ই-মেইল সিকুয়েন্স হল কয়েকটি ই-মেইলের সিরিজ যেগুলো অটোমেটিক্যালি ই-মেইলের জন্য লিস্টেট পার্সনদের সেন্ড করা হয়৷ এটা অনেকটা ই-মেইল মার্কেটিং যার উদ্দেশ্য হল ই-মেইলের মাধ্যমে অডিয়েন্সের কাছে প্রোডাক্ট পরিচিতি বাড়ানো এবং তাদের ইন্টারেস্ট তৈরি করা। 

লাইভ চ্যাট

 লাইভ চ্যাট (লিড জেনারেশন টিপস)

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলির লাইভ অপশনটি খুবই ভালো অপশন কাস্টমারদের সাথে সরাসরি কানেক্ট হওয়ার। লিড জেনারেট করার জন্য লাইভ চ্যাট হতে পারে আপনার জন্য ইজি একটা মাধ্যম। এজন্য বিজনেস একাউন্ট থেকে মাঝে মাঝেই লাইভে যান, অডিয়েন্সের সাথে কানেক্ট হোন, আপনার প্রোডাক্ট, সার্ভিস নিয়ে আলোচনা করুন, অডিয়েন্সের কমেন্ট পড়ুন, তাদের প্রব্লেমস গুলো বুঝার ট্রাই করুন, সুবিধামত উত্তর দিন। 

লস্ট অপরচিউনিটি ইনভেস্টিগেট

লস্ট অপরচুনিটি ইনভেস্টিগেট (লিড জেনারেশন টিপস)

অনেক সময় “না” মানে “এখন না”, তার মানে তিন মাস/ছয়মাস বা একবছর পর তাদের সার্ভিসটা দরকার হতেও পারে। এজন্য যে অপরচিউনিটি গুলো ক্লোজ হয়ে গেছে অইগুলো পুনরায় ফলোআপ করুন। তাদের সাথে কল, ই-মেইলের মাধ্যমে কমিউনিকেট করুন, ওয়ার্কশপে ইনভাইটেশন দিন। এসবের মাধ্যমে অডিয়েন্সের সাথে একটা ভালো বন্ডিং তৈরি হবে এবং সে আপনার প্রোডাক্ট, সার্ভিসের ব্যাপারে সিরিয়াসলি চিন্তা করবে। সেলস বৃদ্ধি করতে হলে এই ট্রিকস গুলো প্রপারলি ফলো করা উচিত। 

ইনভলভ সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে যারা মোটামুটি পপুলার, হাই ফলোয়ারস আছে এমন কারো কথা মানুষ সহজে শুনে এবং তাদের কথায় অনেক ইনফ্লুয়েন্সও হয়, বিজনেসের লিড জেনারেট করতে হাই ফলোয়ারস আছে, ফেমাস ইনফ্লুয়েন্সারদের কাজে লাগাতে পারেন।

সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার ইনভল্ভ করা (লিড জেনারেশন টিপস)

তাদেরকে দিয়ে আপনার প্রোডাক্ট, সার্ভিস নিয়ে প্রমোশনাল ভিডিও ক্রিয়েট করুন এবং পাব্লিশ করুন সকল ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া (ফেসবুক, ইউটিউব, টিকটক,ইন্সটাগ্রাম) প্ল্যাটফর্মগুলোতে। ইনফ্লুয়েন্সার মার্কেটিং এর মাধ্যমে খুব সহজেই কাস্টমারদের বিশ্বাস অর্জন করা সম্ভব।

সোশ্যাল মিডিয়া ব্র‍্যান্ড প্রোফাইল ডিজাইন 

লিড জেনারেশন এবং বিজনেসের সেলস বৃদ্ধি করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজনেস পেইজ, প্রোফাইল, এবং ওয়েবসাইট ওয়েল ডেকোরেট করুন।মনে রাখবেন আপনার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল অডিয়েন্সের মনে  অনেক বেশি প্রভাব বিস্তার করে। ব্র‍্যান্ড সম্পর্কিত সবকিছু, প্রোডাক্ট, সার্ভিস ডেমন্সট্রেশন, ইউনিক প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন ইত্যাদি এড করুন, লিড জেনারেশনের জন্য একটা স্মার্ট প্রোফাইল, পেইজ, ওয়েবসাইট অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এমন ভাবে প্রোফাইল সাজান যেনো সহজেই আপনার প্রোফাইল দেখে মানুষ ইমপ্রেস হয়, এবং আপনি কে, আপনার ব্র‍্যান্ড কি রিলেটেড এব্যাপারে ক্লিয়ার ধারণা পায়।

সোশ্যাল মিডিয়া ব্র্যান্ড প্রোফাইল ডিজাইন

সর্বোপরি, লিড জেনারেশন আপাতদৃষ্টিতে যতটা সহজ মনে হয়, ততোটাও সহজ কাজ নয়। তবে যেকোনো বিজনেস বড় করতে এবং সেলস বৃদ্ধি করতে লিড জেনারেশন অনেক জরুরি। যেকোনো একটি সোর্সের উপর নির্ভর করে কখনোই লিড জেনারেশন হয়না, সেক্ষেত্রে মাল্টিপল সোর্স কে কাজে লাগিয়ে লিড জেনারেশন করতে হয়। উপরোক্ত টিপস গুলি সঠিক ভাবে কাজে লাগিয়ে যেকোনো বিজনেসের লিড জেনারেশন এবং সেলস বৃদ্ধি করা সম্ভব। সুতরাং টিপসগুলোকে কাজে লাগান, সেলস বৃদ্ধি করুন এবং বিজনেসের পরিচিতি বাড়ান।

Don't wait!
Get the expert business advice You need in 2022

It's all include in our newsletter!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More To Explore
আপনার ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট কিভাবে বিল্ড এবং গ্রো করবেন
Marketing

আপনার ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট কিভাবে বিল্ড এবং গ্রো করবেন

ই-মেইল মার্কেটিং লিস্ট বিল্ড এবং গ্রো করা একটা সাকসেসফুল ই-মেইল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি এর প্রথম স্টেপ।ই-মেইল মার্কেটিং বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটা মোস্ট কমন এবং ইফেক্টিভ

আপকামিং ফাদার্স-ডে সেল টার্গেট অ্যাচিভ করার-৭টি টিপস
Marketing

আপকামিং ফাদার্স-ডে সেল টার্গেট অ্যাচিভ করার-৭টি টিপস

বাবা-নিজের শখ, চাহিদা এবং সুখ বিসর্জন দিয়ে আমাদের জীবনের প্রতিটা মুহুর্ত সুন্দর করার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করা কারিগর। বাবারা হয়ত বাইরের থেকে কঠিন। কিন্তু এই